Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪০
রাজনগরে কৃষি ঋণ নিতে পদে পদে হয়রানি
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার সোনালী ব্যাংকে দালালের দৌরাত্ম্য থামছেই না। তাদের হাত থেকে রেহাই মিলছে না সাধারণ কৃষকদেরও।

সরকার ঘোষিত কৃষিঋণ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে তুলতে গিয়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তারা। ঋণ প্রস্তাব থেকে শুরু করে টাকা পাওয়া পর্যন্ত পদে পদে দালাল দ্বারা হয়রানির শিকার হচ্ছেন দরিদ্র কৃষক।

সোনালী ব্যাংক রাজনগর শাখার ব্যবস্থাপক ইসমে আজম বলেন, ‘আমি গত ২৬ সেপ্টেম্বর এখানে যোগদান করেছি। এর পর থেকে ব্যাংকে সব ধরনের দালাল প্রবেশ নিষেধ করা হয়েছে। কৃষকসহ কোনো গ্রাহক যাতে হয়রানির শিকার না হন সে দিকে আমাদের কড়া নজরদারি রয়েছে। ’ জানা যায়, ব্যাংকে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে এক-দুজন দালাল রয়েছেন। দালালরা বিশেষ করে কৃষিঋণ অতি সহজে পৌঁছে দেবেন বলে কৃষকদের কাছ থেকে অগ্রিম ৩ হাজার করে টাকা নেন। ২০ হাজার টাকা ঋণ তোলার পর তাদের দিতে হয় আরও ৬-৭ হাজার। এভাবে ঋণের প্রায় অর্ধেক চলে যায় দালালের পকেটে। কিন্তু পুরো ২০ হাজার টাকার বোঝা মাথায় নিতে হচ্ছে খেটে খাওয়া কৃষকদের। অভিযোগ রয়েছে ব্যাংকের পিয়ন ও কিছু অসাধু কর্মকর্তার সঙ্গে দালালের যোগসাজশ রয়েছে। তাদের মাধ্যমে ঋণের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে দালালরা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow