Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১০
আবারও আন্দোলনে যাচ্ছেন বড়পুকুরিয়া খনি শ্রমিকরা
দিনাজপুর প্রতিনিধি

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি শ্রমিকরা আবারও আন্দোলনে যাচ্ছেন। গতকাল খনির প্রশাসনিক দক্ষিণ গেটের সামনে বর্ধিত সভায় আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

সভা শেষে কয়লাখনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী বরাবর ১ নভেম্বর স্মারকলিপি প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়। আগামী নভেম্বর মাসের মধ্যে চাকরি স্থায়ীকরণ না হলে খনির প্রধান কার্যালয় ঘেরাওসহ অবরোধ কর্মসূচির মতো কঠিন আন্দোলনের সিদ্ধান্ত হয়। বড়পুকুরিয়া খনি শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি বলেন, প্রতিদিন ২৯৭ টাকা মজুরিতে ভূগর্ভের নিচে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন শ্রমিকরা। যেদিন কাজ সেদিন বেতন। কাজে না এলে বেতন নেই, তাদের কোনো ছুটিও নাই। ভূগর্ভে বেশি তাপমাত্রায় মাসে ১৫ দিনের বেশি কাজ করতে পারেন না শ্রমিকরা। তাই ১৫ দিনের বেতন দিয়ে সারা মাস সংসার চালাতে হয়। এ জন্য চাকরি স্থায়ীকরণে তাদের আন্দোলন করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, খনিতে যারা স্থায়ী চাকরি করেন তাদের একজন ঝাড়ুদারের বেতন ৩০ হাজার টাকা। যারা অস্থায়ী ভিত্তিতে কয়লা উৎপাদন করেন তারা মাস শেষে বেতন তোলেন ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা। বর্ধিত সভায় খনির শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খনির শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের উপদেষ্টা, পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুল হক প্রামাণিক।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow