Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:১০
শেরপুরে বন্যহাতির আক্রমণে নিহত ৩
শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় ভারতীয় বন্যহাতির হামলায় তিনজন নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে তিন ঘণ্টাব্যাপী শতাধিক হাতির দুটি পাল পানবর ও দুধনই গ্রামে তাণ্ডব চালায়। তাণ্ডবে নিহতদের মধ্যে রয়েছেন, পানবর গ্রামের জহুরুল (৪৫), সুন্নত আলীর স্ত্রী আয়তুন নেছা ওরফে বেলু মাও (৩২) এবং দুধনই গ্রামের আয়তুল্লার ছেলে আবদুল হাই (৫৫)।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর শতাধিক বন্যহাতি দুই দলে ভাগ হয়ে সীমান্ত পেরিয়ে পানবর ও দুধনই এলাকায় প্রবেশ করে। শুরুতেই হাতির দল প্রায় ১৫ হেক্টর জমির ধান নষ্ট করে ও ঘরবাড়ি পায়ে মাড়িয়ে ধ্বংস করে। খবর পেয়ে শত শত মানুষ লাঠিসোঁটা নিয়ে ঢাকঢোল পিটিয়ে হাতি তাড়ানোর চেষ্টা করেন। তবে এতে হাতির দল ক্ষিপ্ত হয়ে  গ্রামবাসীর ওপর চড়াও হয়। তখন প্রাণে বাঁচতে সবাই দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় কৃষক জহুরুল মাটিতে পড়ে গেলে হাতির দল তাকে পায়ের নিচে পিষ্ট করে মেরে ফেলে। পরে হাতির দল বাড়িতে প্রবেশ করে ঘরের দরজা ভেঙে আবদুল হাই ও আয়তুন নেছাকে টেনে বের করে পিষে মেরে ফেলে। এ অবস্থায় রাতে ওই দুই গ্রামের মানুষ বাড়ি-ঘর ছেড়ে পাশের গ্রামে আশ্রয় নেন। রাতেই প্রশাসনের তরফ থেকে সেখানে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের পাঠানো হয়। এদিকে গতকাল পাওয়া শেষ খবর অনুযায়ী, হাতির দল ওই এলাকাতেই অবস্থান করছিল। এর আগে সকালের দিকে ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, বন্যহাতির দল পার্শ্ববর্তী ছোট গজনি এলাকায় অবস্থান নিয়ে ছিল।

উল্লেখ্য, এ নিয়ে দেড় মাসের ব্যবধানে সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী ও শ্রীবরদী উপজেলায় বন্যহাতির হামলায় সাতজনের প্রাণহানি ঘটল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow