Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৩
এক পলক

বরিশালে পুকুরে ডুবে ভাইবোনের মৃত্যু

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোড় ইউনিয়নের বংকুড়া গ্রামে পুকুরের পানিতে ডুবে চাচাতো ভাইবোনের মৃত্যু হয়েছে। এরা হলো ওই গ্রামের সাইপ্রাস-প্রবাসী  ইলিয়াস বেপারীর মেয়ে ইশা মণি (৪) ও আলমগীরের ছেলে আবদুল্লাহ (৫)। গতকাল দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গতকাল দুপুরে বাড়ির উঠানে খেলা করার সময় তারা পুকুরে পড়ে যায়।

—নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

১০ টাকা কেজির ১৮৩ বস্তা চাল জব্দ

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলায় দরিদ্র ও দুস্থদের জন্য ১০ টাকা কেজির প্রায় সাড়ে ৮ মেট্রিক টন ওজনের ১৮৩ বস্তা চাল জব্দ করেছে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ মঙ্গলবার চালগুলো জব্দ করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ফুলছড়ির ইউএনও আবদুল হালিম জানান, সংশ্লিষ্ট ডিলারের বিরুদ্ধে মামলা হবে। তার ডিলারশিপও বাতিল করা হবে। —গাইবান্ধা প্রতিনিধি

অর্ধ কোটি টাকার সরকারি জমি উদ্ধার

মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার কেদারগঞ্জ বাজারসংলগ্ন এলাকা থেকে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মোল্লার দখলে থাকা প্রায় অর্ধ কোটি টাকার সরকারি খাসজমি উদ্ধার করেছেন জেলা প্রশাসক। গতকাল দুপুরে জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ ও মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ন কবির সেখানে অভিযান চালিয়ে সরকারি জমি দখলে নিয়ে লাল পতাকা টাঙিয়ে দেন। এ সময় বাগোয়ান ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা ইউসুফ আলী, উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির হামিদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। —মেহেরপুর প্রতিনিধি

সাদত কলেজে মেডিকেল সেন্টার

বঙ্গের আলীগড় খ্যাত টাঙ্গাইলের করটিয়া সরকারি সা’দত কলেজে বহুল প্রতীক্ষিত মেডিকেল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। গতকাল সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে মেডিকেল সেন্টার-এর উদ্বোধন করেন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আলীম মাহমুদ, শিক্ষক পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান। সা’দত কলেজ ক্যাম্পাসের পার্শ্ববর্তী কোনো স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স না থাকায় প্রায় ২৫ হাজার শিক্ষার্থী ও শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষিকার একটি মেডিকেল সেন্টার স্থাপনের প্রয়োজন ছিল। —টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

তিন ইউএনওর সোলার প্যানেল পরিদর্শন

শেরপুরের তিন উপজেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে স্থাপিত সোলার প্যানেল পরিদর্শন করেছেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা। গতকাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা নাছরিন, ঝিনাইগাতী উপজেলার পিআইও আজিজুর রহমান সোলার প্যানেলগুলো পরিদর্শন করেন। এ সময় কর্মকর্তারা সোলার প্যানেলের গুণগত মান সম্পর্কে ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে খোঁজখবর নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা আরডিএসের নির্বাহী পরিচালক নুরউদ্দিনকে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করার পরামর্শ দেন। জানা গেছে, জেলায় ২০১৪-১৫ অর্থবছর থেকে টিআর-কাবিখা প্রকল্পের অর্থায়নে ইডকলের সহযোগী সংস্থা হিসেবে আরডিএস ২৭৯টি সোলার প্যানেল স্থাপনের কাজ বাস্তবায়ন করছে। সোলার ব্যবহারকারীরা জানিয়েছেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে অনেক বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়েছে।

—শেরপুর প্রতিনিধি

এই পাতার আরো খবর
up-arrow