Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩৮
সিরাজগঞ্জে যমুনা স্পার বাঁধে ধস, ১৭০ মিটার বিলীন
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
সিরাজগঞ্জে যমুনা স্পার বাঁধে ধস, ১৭০ মিটার বিলীন
সিরাজগঞ্জের শিমলায় যমুনাপাড়ের সলিড স্পারে ধস —বাংলাদেশ প্রতিদিন

সিরাজগঞ্জ সদরের পাঁচঠাকুরি এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মিত ২নম্বর স্পার বাঁধে ধস নেমেছে। এতে প্রায় ১৭০ মিটার এলাকার মাটির স্যাংক বিচ্ছিন্ন হয়ে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বুধবার রাত থেকে শুরু হয়। আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে বাঁধের পাশে বসবাসকারী মানুষ। তাদের মতে, সঠিক মতো সংস্কার না করা এবং অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে বাঁধটি ভেঙে গেছে। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, আতঙ্কের কিছু নেই। অল্প সময়ের মধ্যেই ভাঙন প্রতিরোধ করা সম্ভব। স্থানীয়রা জানান, শিমলা, মটিয়াপুর, জিয়ার মোড় ও বাঘমোড়সহ অনেক গ্রাম বহু আগেই চলে গেছে যমুনার গর্ভে। পাঁচঠাকুরি, বালিঘুগরী, ইটালী ও বাহুকা কোনো রকমে টিকে থাকলেও রয়েছে ভয়াবহ ভাঙনের মুখে। গ্রামগুলো রক্ষার জন্য ২০০০ সালে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় ২ নম্বর স্পার বাঁধ। ২০১০ সালে নদীতীর সংরক্ষণের জন্য সিরাজগঞ্জ থেকে কাজীপুর পর্যন্ত ২২টি প্যাকেজে ২৮৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। কিন্তু স্পারের উত্তরে ১৮ নম্বর প্যাকেজটি কাজ না হওয়ায় ২০১৫ সালে নতুন করে ৪৩০ কোটি টাকার প্রকল্প ব্যয় ধরে নতুন করে দরপত্র আহ্বান করা হয়। কিন্তু এখনো প্যাকেজটির কাজ শুরু হয়নি। এ অবস্থায় মাত্র একমাস আগে ওই স্থানে ভাঙন দেখা দেয়। এদিকে, পানি উন্নয়ন বোর্ডের পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী বাবুল চন্দ্র শীল, জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দিকা ও নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ হাসান ইমামসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow