Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:৪৮
প্রবেশপত্র না পেয়ে দুশ্চিন্তায় ৩৫ শিক্ষার্থী
টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি

টঙ্গী মন্নু টেক্সটাইল মিলস্ উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র না পেয়ে দুশ্চিন্তায় ৩৫ পরীক্ষার্থী। আশপাশের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে ৪দিন আগে প্রবেশপত্র পৌঁছে গেলেও এ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা গতকাল এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত প্রবেশপত্র হাতে পায়নি।

মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত্ম অপেক্ষা করে প্রবেশপত্র না পেয়ে ছাত্রছাত্রীদের অঝোরে কান্নাকাটি করতে দেখা গেছে। এক কর্মচারী প্রবেশপত্র (আজ) বুধবার সকাল ১০টার মধ্যে দেওয়ার আশ্বাস দিলে পরীক্ষার্থীরা চলে যায়।  

শিক্ষার্থীরা জানায়, এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় সরকার নির্ধারিত ফরম ফিলাপের ফি ১ হাজার ৯৮০ টাকা হলেও প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাই ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে ফরম ফিলাপ বাবদ অতিরিক্ত ফি আদায় করেছেন। এরমধ্যে পরীক্ষার্থী জুয়েলের কাছ থেকে ফরম ফিলাপ বাবদ ৮ হাজার ৫০০, ফজলে রাব্বি ১৩ হাজার ৫০০, শিউলি ৭ হাজার ৫০০, সাগর মিয়া ও জাকির হোসেন ৮ হাজার, ফয়সাল ৮ হাজার ৫০০, রত্না আক্তার ৬ হাজার ৫০০, মুন্না ৭ হাজার ৫০০, তাজনাহার ৬ হাজার, রহিমা বেগম ৭ হাজার ৫০০, খোকন মিয়া ৬ হাজার ৫০০, নাজমুন্নাহার ৫ হাজার ৫০০, মিলি আক্তার ৬ হাজার, রিকিং ৫ হাজার ৫০০, কুহিনুর আক্তার ৮ হাজার ৫০০ টাকাসহ লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন। প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাইয়ের সঙ্গে তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ছাত্রছাত্রীদের দুশ্চিন্তার কারণ নেই। একটু দেরি হতেই পারে। আমি ঢাকা বোর্ডে অবস্থান করছি। পরীক্ষার আগেই তারা প্রবেশপত্র পেয়ে যাবে। উল্লেখ্য, গত ২০১৬ সালের এসএসসি পরীক্ষায় ৪২ ছাত্রছাত্রীর সঠিক সময় প্রবেশপত্র না পেয়ে বিদ্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুর করে।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ এবং প্রধান শিক্ষকের বাসভবনসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow