Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩১
বাঘাইছড়ি পৌরসভা নির্বাচন
লড়াই হবে ত্রিমুখী
রাঙামাটি প্রতিনিধি

পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে উৎসবের আমেজ বইছে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায়। ২০০৪ সালে গঠিত এ পৌরসভার দ্বিতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও স্বতন্ত্র মিলে লড়াই হবে ত্রিমুখী। এবার দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হওয়ায় নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। মেয়র পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগের জাফর আলী খান (নৌকা), বিএনপির মো. ওমর আলী (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আজিজুর রহমান (মোবাইল ফোন)। অন্যদিকে ৯ ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৫ এবং তিনটি সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রসঙ্গত, ভারতের মিজোরাম রাজ্যের সীমান্তবর্তী দেশের সবচেয়ে বড় উপজেলা রাঙামাটির বাঘাইছড়ি। একটি পৌরসভাসহ ৮টি ইউনিয়ন নিয়ে গড়ে উঠেছে এ উপজেলা। এ পৌরসভায় মোট ভোটার ১০ হাজার ১৭৭। নির্বাচনে ৯টি কেন্দ্রের ৩৩ বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

অন্যদিকে নির্বাচনকে ঘিরে আলোচনায় ভোটাররা। প্রার্থীদের নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন তারা। চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা ও হিসাব-নিকাশ। তবে এ আসনটি ধরে রাখতে চায় ক্ষমতাশীল দল আওয়ামী লীগ। এ ব্যাপারে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মুছা মাতব্বর বলেন, বাঘাইছড়িতে আওয়ামী লীগের প্রতি গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। যাকে দলীয় প্রার্থী দেওয়া হয়েছে, তিনি প্রবীণ রাজনীতিক, পরীক্ষিত ও যোগ্য নেতা। সুষ্ঠু ভোট হলে দলীয় প্রার্থীর বিপুল জয় হবে। অন্যদিকে রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহ আলম বলেন, বাঘাইছড়ি পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত হলে মেয়র পদে বিএনপির জয় নিশ্চিত।

রাঙামাটি জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, ১৮ ফেব্রুয়ারি বাঘাইছড়ি পৌরসভায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে বলে আশা করছি।

বাঘাইছড়ি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম বলেন, নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের তিন স্তরে নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সঙ্গে আছে গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ দল।

রাজনৈতিক দলগুলো নিজ নিজ দলের প্রার্থীর পক্ষে আটঘাট বেঁধে নেমেছে। নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন তিন হেভিওয়েট প্রার্থী। এ তিন প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি। ফলে নির্বাচনে হারজিত নিয়ে সঠিক হিসাব মেলাতে পারছে না প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। নির্বাচনে

এই পাতার আরো খবর
up-arrow