Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০২
প্রতিবন্ধীর জমি দখল করে ঘর নির্মাণ
আমতলী প্রতিনিধি
প্রতিবন্ধীর জমি দখল করে ঘর নির্মাণ

বরগুনার আমতলী উপজেলার গাজীপুর বন্দরে শারীরিক প্রতিবন্ধীর জমি দখল করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। প্রতিবন্ধীর স্ত্রী নূপুর বেগম এ অভিযোগ করেছেন।

জানা যায়, গাজীপুর মৌজার ১৩৪৩ নম্বর দাগে ২৫ শতাংশ পৈত্রিক জমিতে বসতঘর নির্মাণ করে বহু বছর ধরে বসবাস করছেন প্রতিবন্ধী ফরিদ মোল্লা। ওই জমি সংলগ্ন খাস খতিয়ানের অনাবাদি জমি রয়েছে। নূপুর বেগমের অভিযোগ, ভূমি অফিসের কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার যোগসাজশে তাদের দখলীয়সহ এক একর জমি ২০০১ সালে স্থানীয় আশ্রাফ তালুকদার নিজেকে ভূমিহীন সাজিয়ে বন্দোবস্ত নেন। ২০১১ সালে বন্দোবস্ত কেস বাতিলের জন্য ফরিদ মোল্লার বোন মাকসুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করেন। বিষয়টি ওই বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর উপজেলা কৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত কমিটির সভায় উত্থাপন করা হলে কেসটি বাতিলের সুপারিশ করে। ২০১২ সালের ১৫ এপ্রিল জেলা কৃষি খাস জমি ব্যাবস্থপনা ও বন্দোবস্ত কমিটির সভায় কেসটি বাতিল করা হয়। সম্প্রতি আশ্রাব তালুকদার তার লোকজন নিয়ে খাস জমিসহ প্রতিবন্ধীর রেকর্ডীয় জমিতে ঘর নির্মাণ শুরু করেন। অসহায় পরিবার বিষয়টি গত ৭ ফেব্রুয়ারি ইউএনও মুশফিকুর রহমানকে জানালে তিনি তাত্ক্ষণিক নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন।

নূপুর বলেন, আশ্রাফ তাদের জমিতে নির্মাণ করা ঘর এখনো সরাননি। উল্টো প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন। এ বিষয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে আশ্রাফকে পাওয়া যায়নি। তার ছেলে রিপন জানান, এ বিষয় তিনি কোনো কথা বলতে পারবেন না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow