Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৩৯
বিদ্যালয়ে রডের পরিবর্তে বাঁশ, ঝুঁকিতে শিক্ষার্থীরা
নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলের লোহাগড়ায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের পিলারের মধ্যে রডের বদলে বাঁশ পাওয়া গেছে। উপজেলার নোয়াগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে আতঙ্কে আছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের একতলা ভবনের পেছন দিকে একটি পিলারে ফাটল দেখা দেয়। ফলে রড দেখা যায়। কিন্তু রডের সঙ্গেই ছিল একটি আস্ত বাঁশ। শিক্ষার্থীরা জানান, বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় ছুটির পরপরই একজন যুবক বাঁশটি নিয়ে গেছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী রবিউল ইসলাম বলেন, ‘ভবনের পেছন দিকের একটি পিলারের ভেতর রডের সঙ্গে লাগোয়া একটি বাঁশ ঢোকানো ছিল। পিলারটি ফেটে যাওয়ায় বাঁশটি দেখা যায়। তবে আজ (গতকাল) বিদ্যালয়ে এসে দেখি বাঁশটি নেই। ’ বিদ্যালয় সূত্র জানায়, ২০০৩ সালে চার কক্ষের ওই ভবনটি তৈরি হয়।

বর্তমানে এখানে শিক্ষার্থী রয়েছে ১৫২ জন।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) লোহাগড়া উপজেলা প্রকৌশলী ওসমান গনি জানান, এলজিইডি ভবনটি তৈরি করেছে। তবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও ঠিকাদারের নাম জানাতে সময় লাগবে। তিনি বলেন, ‘বিদ্যালয়ে গিয়ে বাঁশ দেখেছি। এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখতে হবে এ রকম আরও আছে কি না। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকেও বিষয়টি জানিয়েছি। ’

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী আল মামুন, সালমানসহ আরও কয়েকজন বলে, ‘এখন ভয় করছে। রডের বদলে যদি এভাবে ভবনে বাঁশ দেওয়া হয়, তাহলে ভবন ভেঙে পড়তে পারে। ’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন অভিভাবক বলেন, কত জায়গায় ভবন ধসে লোক মারা যাচ্ছে। বাঁশ দিয়ে তৈরি হলে এটিও তো ভেঙে পড়বে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow