Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৪৭
প্রকাশ্যে কাটছে পাহাড় নীরব প্রশাসন
বান্দরবান প্রতিনিধি
প্রকাশ্যে কাটছে পাহাড় নীরব প্রশাসন

বান্দরবান সদর উপজেলার কালাঘাটা এলাকায় স্কেভেটর দিয়ে প্রকাশ্যে অবৈধভাবে কাটা হচ্ছে পাহাড়। পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়ক ভরাটের কাজে এসব পাহাড়ের মাটি ব্যবহার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

তারা জানান, সদর উপজেলার কালাঘাটা শিশু পরিবার সংলগ্ন এলাকায় পৌর কাউন্সিলর অজিত কান্তির মালিকানাধীন পাহাড় অবৈধভাবে কেটে মাটি বিক্রি করছে মেসার্স আবছার কনস্ট্রাকশনের ঠিকাদার নুরুল আবছার। এই পাহাড়ের মাটির একাংশ দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়ক। প্রকাশ্যে বিশাল পাহাড় কেটে সাবাড় করলেও প্রশাসন নীরব ভূমিকা পালন করছে। কালাঘাটার বাসিন্দা নুর আহাম্মদ ও উচনু মারমা জানান, নুরুল আবছার ও তার সহযোগীরা স্কেভেটর দিয়ে প্রকাশ্যে পাহাড় কাটছেন। ইতিমধ্যে বিশাল পাহাড়টির একাংশ কাটা হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে নুরুল আবছার বলেন, ‘পৌর এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা সংস্কার কাজ চলছে। দ্রুত কাজ শেষ করার জন্য মেয়র বারবার চাপ দিচ্ছেন। তাই পাহাড় থেকে মাটি নিয়ে রাস্তার কাজ শেষ করার চেষ্টা করছি। ’ বান্দরবান পৌর মেয়র ইসলাম বেবী বলেন, ‘উন্নয়ন কাজের দায়িত্ব পেয়েছেন ঠিকাদার। তারা মাটি কোন স্থান থেকে আনবেন সেটি তাদের ব্যাপার। ’ জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক জানান, অবৈধভাবে পাহাড় কাটার খবর আপনাদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেব। ’ বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ (সংশোধিত ২০১০) এবং ভবন নির্মাণ আইন (১৯৫২) অনুযায়ী কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনো পাহাড় কাটা যাবে না।

 

এই পাতার আরো খবর
up-arrow