Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৫০
ডাকাত সাজিয়ে দুই ব্যক্তিকে হত্যা
সুষ্ঠু তদন্ত বিচার দাবিতে সমাবেশ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

নবীনগর উপজেলার সাতমোড়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে এনামুলক হক (৪৫) ও ইয়াছিন মিয়া (৪০) নামে দুই ব্যক্তির হত্যার প্রতিবাদ, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ হয়েছে। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সামনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাত্র-ছাত্রীরা এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

কর্মসূচিতে জেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সদস্যরা অংশ নেন। নিহত ইয়াছিনের মেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের সাবেরা সোবহান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতুল বলেন, জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার সেন্টু মিয়াসহ কতিপয় লোকজন একটি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমার বাবা ও খালু এনামুল হককে ডাকাত বানিয়ে গণপিটুনির ঘটনা সাজিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। পুলিশ আমাদের অভিযোগ মামলা আকারে নেয়নি। পুলিশ ও সেন্টু মিয়া উল্টো আমার বাবা ও খালুর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবিসহ জড়িতদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। বাবা ও খালুর হত্যার বিচারের দাবি জানান জান্নাতুল। উল্লেখ্য, ১ মার্চ রাতে নবীনগর উপজেলার সাতমোড়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে রাত সাড়ে সাতটার দিকে এনামুল ও ইয়াছিন খুন হন। ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার সময় স্থানীয় জনতার গণপিটুনিতে তারা নিহত হন বলে সে সময় পুলিশ জানান। এনামুল রসুল্লাহবাদ ইউনিয়নের রসুল্লাবাদ গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে ও ইয়াছিন একই উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের কাজলিয়া গ্রামের মৃত জারু মিয়ার ছেলে। ইয়াছিন বিজিবির অবসরপ্রাপ্ত সদস্য। তিনি গত ইউপি নির্বাচনে চেয়ানম্যান পদে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow