Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ মার্চ, ২০১৭ ০১:৪৯
সাঘাটায় আ.লীগ-যুবলীগ সংঘর্ষে আহত ৫
গাইবান্ধা প্রতিনিধি

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্মবার্ষিকীতে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের মধ্যে গতকাল সংঘর্ষ হয়েছে। এতে অন্তত পাঁচজন আহত হন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ছোড়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান আয়োজন করে উপজেলা প্রশাসন। প্রধান অতিথি ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়া কেক কাটা পর্ব শেষ করে নেতা-কর্মীদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিতে যান। একই সময় ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপনের পক্ষের উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরাও ফুল দেওয়ার জন্য মিছিল নিয়ে সমবেত হন। এ সময় উভয় গ্রুপের নেতা-কর্মীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে।

পরে বোনারপাড়া রেলস্টেশন ও বাজার এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া চলে। এতে সাঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ওয়ারেছ আলী প্রধান, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ছামছুল আরেফিন টিটু, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নাসিরুল আলম স্বপন, ছাত্রলীগ সহসভাপতি মুশফিকুর রহমান সুজন ও যুবলীগ নেতা মোজাহার আলী আহত হন।

সাঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওয়ারেছ আলী প্রধান জানান, ‘বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে কেন আমরা আগে ফুল দিলাম এ নিয়ে ডেপুটি স্পিকারের মদদপুষ্ট যুবলীগ কর্মীরা আমাদের ওপর চড়াও হন। পরে দুপুর ১টার দিকে তারা সংগঠিত হয়ে স্টেশন এলাকায় আমাদের ওপর হামলা চালান। ’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow