Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪২
গ্রামটি এখন জনশূন্য
হামলা-মামলা আতঙ্ক
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার বজকপুর গ্রামে একটি হত্যাকাণ্ডের জেরে প্রতিপক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর লুটপাট করা হয়। আবারও হামলা ও মামলা আতঙ্কে গ্রামটি এখন প্রায় জনশূন্য। পুলিশ হামলা-লুটের ঘটনা স্বীকার করে জানায়, সংক্ষুব্ধ লোকজন কিংবা তৃতীয় কোনো পক্ষ এ ঘটনা ঘটাতে পারে। এখন ওই গ্রামের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

জানা যায়, বাড়ির সীমানা এবং মামলা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত ২৫ আগস্ট বজকপুর গ্রামের দুলাল মেম্বার ও সবুজ মিয়ার লোকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে সবুজের ভাই বাবুল মিয়া মারা যান। এ ঘটনার পর থেকে নারী-শিশুসহ আসামি পক্ষের লোকজন গ্রামছাড়া। বাদীপক্ষের কয়েকটি পরিবারের লোকজন ছাড়া কেউই গ্রামে নেই। অভিযোগ আছে, হত্যাকাণ্ডের পর বাদীপক্ষের লোকজন প্রতিপক্ষের ৩০টি পরিবারের বাড়িঘর ও দোকানপাটে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। গৃহবধূ স্বপ্না ও জুয়েনা জানান, সংঘর্ষের পরদিন থেকে বাদী সবুজ মিয়ার লোকজন তাদের বাড়িসহ অন্য বাড়িঘর জনশূন্য অবস্থায় পেয়ে লুটপাট ও ভাঙচুর চালায়। ঘরের আসবাবপত্র ছাড়াও নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, ধান-চাল, গৃহপালিত পশু নিয়ে গেছে। কয়েকটি বাড়ির শুধু ভিটে পড়ে আছে। ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অস্বীকার করে বাদী সবুজ মিয়া জানান, বাবুল খুন হওয়ার পর আসামি পক্ষের লোকজন নিজেরাই মালামাল নিয়ে সটকে পড়ে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই পাতার আরো খবর
up-arrow