Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৩ জুন, ২০১৬ ১৭:৪১
হবিগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় ভয়াবহ সংঘর্ষ, আহত দেড়শতাধিক
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের গুলি
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় ভয়াবহ সংঘর্ষ, আহত দেড়শতাধিক

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের সুতাং রেলস্টেশন এলাকায় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ১০টি গ্রামের মধ্যে ৬ ঘন্টা ব্যাপি সংঘর্ষে দেড়শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রবিবার সন্ধ্যায় ওলিপুরে অবস্থিত প্রাণ কোম্পানীর কয়েকজন শ্রমিক বাছিরগঞ্জ বাজার যাওয়ার জন্য ব্যাটারি চালিত ইজিবাইকে উঠেন। চালক সুরাবই গ্রামের আল-আমিন যাত্রীদেরকে সুতাং বাজার নামিয়ে দেন। এনিয়ে উভয় পক্ষের মাঝে বাকবিতণ্ডা হয়। এরই জের ধরে সোমবার সকালে সংঘর্ষ শুরু হয়।  

প্রথমে সুরাবই ও কান্দিগাও গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষ শুরু হলেও পরে কান্দিগাও গ্রামের পক্ষে শৈলজুড়া, ভাটি শৈলজুড়া, গুরাবই, কাটাখালি এবং সুরাবই গ্রামের পক্ষে পুড়াসুন্দা, ও শরিফাবাদ গ্রামসহ আশে পাশের ১০টি গ্রামের লোকজন এই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।  

সংঘর্ষে গুরুতর আহত নজির মিয়া, আলফু মিয়া, সুরুজ আলী, হাবিবুর রহমান, মর্তুজ আলী, শাহজাহান মিয়া, আব্দুর লতিফ, কবির মিয়া, হেলাল মিয়া, সিচিল মিয়া, ছানু মিয়া, মধু মেম্বার, বশির মিয়া, আব্দুল মতিন, দিন ইসলাম, আব্দুল গনি, সাবুদ মিয়া, তছকির মিয়া, আজদু মিয়া, সাহাব উদ্দিন, সাহেদ আলী, শহীদ মিয়া, জাহির মিয়া, টেনু মিয়া, বাচ্চু মিয়া, খেলু মিয়া, আবুল মিয়া বিলাল মিয়াসহ শতাধিক রোগীকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। গুরুতর আহত মঞ্জব আলীকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে সংঘর্ষ চলাকালে সুরাবাই গ্রামের চলাচলের রাস্তার কালভার্ট ভেঙ্গে দেয়া হয় এবং বেশ কয়েকটি দোকান লুটপাট ও ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ ও হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাবার বুলেট ও কাদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।  


বিডি প্রতিদিন/১৩ জুন ২০১৬/হিমেল-১১

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow