Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০১৬ ০৯:৩৯
ফাহিমের লাশ 'গোপনে' হস্তান্তর, পুলিশের ৩ মামলা
মাদারীপুর প্রতিনিধি
ফাহিমের লাশ 'গোপনে' হস্তান্তর, পুলিশের ৩ মামলা

মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর উপর হামলার ঘটনায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ফাহিমের লাশ গোপনীয়তার মাধ্যমে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে, এ ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানায় হত্যা, পুলিশকে আহত ও অস্ত্র উদ্ধার নিয়ে ৩টি মামলা দায়ের করেছে বলে জানিয়েছেন মাদারীপুর মডেল থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদ।

এর আগে শনিবার বিকেল ৪টার দিকে সদর থানায় লাশ নিতে যান নিহত ফাহিমের বাবা ও মা। এ সময় গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে ফাহিমের পরিবারের সাথে কথা বলতে দেয়নি পুলিশ।

এরও আগে, শনিবার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মিয়ারচর গ্রামে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয় ফাহিম। এরপর দুপুরে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শশাঙ্ক ঘোষসহ ৩ সদস্যের বিশেষ টিম ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন।

উল্লেখ্য, বুধবার বিকেলে সরকারি নাজিমউদ্দিন কলেজের ছাত্রী হোস্টেলের সামনে কলেজের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর নিজ ভাড়া বাসায় হামলা চালায় ৩ জন দুর্বৃত্ত। হামলা শেষে পালিয়ে যাবার সময় সময় গোলাম সাইফুল্লাহ ফাহিম (২০) নামে একজনকে আটক করা হয়। গুরুতর অবস্থায় প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীকে বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরদিন বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশের পক্ষ থেকে এ ঘটনায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে ফাহিমকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ফাহিমের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরপর শনিবার সকালে বন্দুকযুদ্ধে ফাহিম মারা যায়।

বিডি-প্রতিদিন/১৯ জুন, ২০১৬/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow