Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২০ জুন, ২০১৬ ১৮:৩০
রূপগঞ্জে শ্রমিককে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩
রূপগঞ্জ (নারায়নগঞ্জ) প্রতিনিধি:
রূপগঞ্জে শ্রমিককে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার গোলাকান্দাইল ৫নং ক্যানেল এলাকায় স্থানীয় এক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় সোমবার সকালে ওই এলাকা থেকে পুলিশ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। গত শনিবার রাতে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, গোলাকান্দাইল ৫নং ক্যানেল এলাকার আশরাফ মোল্লার ছেলে লিটন মোল্লা (২২), বগুড়া জেলার কাহালু থানার বগাইল এলাকার হেলাল উদ্দিনের ছেলে তরিকুল ইসলাম (১৯) ও মৌলভীবাজার এলাকার শ্রীমঙ্গল থানার দিঘীরপাড় এলাকার মন্তাজ উদ্দিনের ছেলে ইউসুফ (২৩)।

ধর্ষিতার বরাত দিয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, স্থানীয় কর্ণগোপ এলাকার কোয়ালিটি ক্যান নামে একটি কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করে আসছেন ওই নারী শ্রমিক। গত শনিবার রাত ৯টার দিকে একটি অটোরিকশাযোগে নিজ বাড়ি গোলাকান্দাইলে ফিরছিলেন তিনি। এসময় স্থানীয় সন্ত্রাসী রাজনসহ রাজন বাহিনীর সদ্যরা অটোরিকশাটির গতিরোধ করে। পরে অটোরিকশা চালক সুমনের সঙ্গে ওই নারী শ্রমিকের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে অপবাদ দেয় সন্ত্রাসীরা। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা মটরসাইকেলযোগে জোরপূর্বক নারী শ্রমিককে উঠিয়ে নিয়ে যায়। পরে একটি খোলা বাড়িতে নিয়ে সন্ত্রাসী রাজন ও তার এক সহকারী ওই শ্রমিককে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর রাজনসহ তার সহযোগিরা ইউসুফ, তরিকুল ও লিটন মোল্লার কাছে ওই নারী শ্রমিককে রেখে চলে যায়। এক পর্যায়ে তরিকুল ও লিটনও ওই শ্রমিককে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

ঘটনাটি রবিবার রাতে ধর্ষিতাসহ তার পরিবারের লোকজন থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পরে সোমবার সকালে পুলিশ গোলাকান্দাইল ৫নং ক্যানেল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ওই তিন লম্পটকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা গণধর্ষণের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

গণধর্ষণের সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসী রাজনসহ তার সহযোগীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, রাজন বাহিনীর কাছে এলাকাবাসী জিম্মি হয়ে পড়েছে। রাজনসহ এ বাহিনীর সদস্যরা একের পর এক হত্যা, গণধর্ষণ, ছিনতাই, ডাকাতি, অপহরণসহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে আসছে।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow