Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২২ জুন, ২০১৬ ১২:২১
লালমনিরহাটে তিস্তার পানি বিপদসীমার উপর, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটে তিস্তার পানি বিপদসীমার উপর, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
ফাইল ছবি

টানা দুই দিনের ভারি বর্ষণ ও উজানের ঢল নেমে আসায় বুধবার সকাল থেকে লালমনিরহাটে তিস্তা ও ধরলার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, সকাল ১১টায় লালমনিরহাটের দোয়ানি ব্যারাজ পয়েন্টে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ২২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

 

অন্যদিকে জেলার কুলাঘাট পয়েন্টে ধরলার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার উপর  দিয়ে প্রবাহিত হয়। হঠাৎ পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর দুই পাড়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে চরাঞ্চলের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।  

চরে অধিকাংশ কাঁচা রাস্তাগুলো ভেঙ্গে গিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। দুর্ভোগে পড়েছে তিস্তা ও ধরলা পাড়ের হাজার হাজার মানুষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যারেজের ৪৪টি গেট খুলে দেয়া হয়েছে। সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন পানি উন্নয়ন্ন বোডের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।  

সদরের খুনিয়াগাছ ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুজ্জামান বাদল জানান, ভারি বর্ষণের সাথে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে তার ইউনিয়নের ১১টি চর গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। হাতিবান্ধার ডাউয়াবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন জানান, ভোর ৬টার পর থেকে হঠাৎ পানির ঢল নামায় তার ইউপির ১৭টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।  

সকালে ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মোস্তাফিজার রহমান জানান, দেশের অভ্যন্তরে ও উজানে ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ায় তিস্তার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করে ২২ সেন্টিমিটার উপর এবং ধরলার পানি বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সেই সাথে প্লাবিত হচ্ছে চরাঞ্চল। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে তিস্তা ও ধরলার ৬৩টি চরের লাখো মানুষ।


বিডি প্রতিদিন/২২ জুন ২০১৬/হিমেল-০৯

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow