Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬

প্রকাশ : ২২ জুন, ২০১৬ ১৬:৫৬
পানিবন্দী তিস্তা পাড়ের হাজার হাজার মানুষ
নীলফামারী প্রতিনিধি:
পানিবন্দী তিস্তা পাড়ের হাজার হাজার মানুষ

উজানের ধেয়ে আসা পানিতে ফুলে ফেঁপে ওঠা তিস্তা ক্রমেই ভয়াঙ্কর রুপ নিচ্ছে। এরই মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দিয়েছে তিস্তা পাড়ে। বাড়িঘর ছেড়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অনেকেই নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে ছুটছেন।

এদিকে বুধবার তিস্তার পানি থেকে থেকেই বিপদ সীমার ২২ থেকে ২৫ সেঃমিঃ পর্যন্ত ওঠানামা করছে।

পাউবোর ডালিয়া ডিভিশন সূত্র জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তার পরেও তিস্তার উপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্কবস্থায় রাখা হয়েছে। খুলে দেয়া হয়েছে তিস্তা ব্যারাজের সবকটি গেট।

তিস্তা পাড়ের স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, তিস্তার উজানে ভারী বর্ষণের কারণে গজলডোবা ব্যারাজের সব গেট খুলে দিযেছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। তিস্তা জিরো পয়েন্টের সূত্রগুলি জানায়, প্রচন্ড শব্দ নিয়ে হুহু করে কাদা পানি আছরে পড়ছে তিস্তায়।

এদিকে পানি বৃদ্ধির ফলে ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই, খগাখড়িবাড়ি, টেপাখড়িবাড়ি, খালিশা চাঁপানী, ঝুনাগাছ চাঁপানী, গয়াবাড়ি ও জলঢাকা উপজেলার, গোলমুন্ডা, ডাউয়াবাড়ি, শৌলমারী ও কৈমারী ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলে গ্রামের পর গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন, ছোটখাতা, পশ্চিম বাইশপুকুর, পূর্ব বাইশপুকুর, কিসামত ছাতনাই, পূর্বছাতনাই ঝাড়শিঙ্গেরশ্বর, বাঘেরচর, টাবুর চর, ভেন্ডাবাড়ী, ছাতুনামা, হলদিবাড়ী, একতার চর, ভাষানীর চর, কিসামতের চর, ছাতুনামাসহ চরগ্রামগুলোর হাজার হাজার মানুষ। পানিতে এলাকার সমস্ত রাস্তা ঘাট তলিয়ে যাওয়ায় পানিবন্দী মানুষের চরম দূর্ভোগে পড়েছেন। বিশেষ করে গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন সবচেয়ে বেশি।

অন্যদিকে টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নে স্বেচ্ছাশ্রমে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে নির্মিত বাধটি ভেঙ্গে ২০ টি গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে। এছাড়া প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যায়ে চরখড়িবাড়ি গ্রামে সদ্য নির্মিত ৫২৫ মিটার বাঁধের ফাটল ধরেছে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানায়, বাঁধ নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম ও নিম্নমানের ব্লক ব্যবহার করায় পানির সামান্য চাপেই বাঁধ ভেঙ্গে যেতে বসেছে।

এদিকে বিকেলে এ খবর লেখার সময় পাউবো ডালিয়া ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান জানান, রাতে পানি না বাড়লে আগামীকাল দুপুর নাগাদ পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হতে পারে।

বিডি-প্রতিদিন/ ২৩ জুন ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 




আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow