Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ২৪ জুন, ২০১৬ ১৮:০০
আপডেট :
পাবনায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ
পাবনা প্রতিনিধি:
পাবনায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ

পাবনার ফরিদপুরে শ্বাসরোধ করে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী ও স্বজনদের বিরুদ্ধে।

নিহত গৃহবধূ হিমু খাতুন ফরিদপুর পৌর সদরের থানপাড়া এলাকার আব্দুল হান্নানের মেয়ে ও ভাঙ্গুড়া উপজেলার পার ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের হাটগ্রামের মামুন হোসেনের স্ত্রী। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনার পর মামুনের খালা মাহফুজাকে আটক করলেও স্বামী ও তাদের স্বজনরা পলাতক রয়েছে।

পরিবারের বরাত দিয়ে ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান জানান, গত ৪ মাস আগে বিয়ে হয় মামুন ও হিমুর। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্ত কলহ দেখা দেয়। গত বুধবার হাটগ্রামের শ্বশুর বাড়ি থেকে হিমুকে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসেন তার মা। পরদিন বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) ফরিদপুর থানাপাড়ায় শ্বশুড় বাড়িতে গিয়ে শাশুড়ীকে বুঝিয়ে হিমুকে নিয়ে ফরিদপুর গ্রামে নানার বাড়ি বেড়াতে যায় স্বামী মামুন। সেখানে বৃহস্পতিবার রাতের কোনো এক সময় স্ত্রী হিমুকে মারপিট ও শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ ঘরের আঁড়ার সাথে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যায় মামুন ও তার স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার সকালে নববধূ হিমুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
ওসি হাবিবুর আরও জানান, এ ঘটনায় হিমুর বাবা আব্দুল হান্নান বাদি হয়ে জামাই মামুন ও তার বাবা, মা, বোন সহ ৬ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর থেকে মামুন ও তার স্বজনরা পলাতক থাকায় গ্রেফতার করা সম্ভব না হলেও মামুনের খালা মাহফুজা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি।

বিডি-প্রতিদিন/ ২৪ জুন ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow