Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১০ জুলাই, ২০১৬ ১৯:০৭
আপডেট : ১০ জুলাই, ২০১৬ ১৯:০৮
আধিপত্য বিস্তারের জেরে আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত, আহত ১৫
অনলাইন ডেস্ক
আধিপত্য বিস্তারের জেরে আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত, আহত ১৫

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ কর্মী আওয়ামী লীগ কর্মী সালাম সিকদার (৪০) নিহত হয়েছেন। রবিবার সকালে উপজেলার ময়না ইউনিয়নের চরমোরাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

জানা যায়, উপজেলা বিএনপির সদস্য আলিম বিশ্বাসের গ্রুপের হামলায় উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জাফর বিশ্বাসের সমর্থক আ. সালাম সিকদার (৪০) ঘটনাস্থলে নিহত হয়। এ ঘটনায় আরও ১৫ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে আওয়ামী লীগ সমর্থক জাহাঙ্গীর সিকদার (৩৫), রবিউল ইসলাম (৩২), রমজান সিকদার (২৫) ও বিএনপি সমর্থক এনায়েত মোল্যাকে (২৭) বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে জাহাঙ্গীরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার পর সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আমিনুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
    

এলাকাবাসী সূত্রে খবর, আওয়ামী লীগ নেতা জাফর বিশ্বাস এবং বিএনপি নেতা আলীম বিশ্বাসের গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। গতকাল শনিবার জাফর সমর্থক জাহাঙ্গীর বাড়ি ফেরার পথে আলীম বিশ্বাসের লোকজন তাকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। এর জের ধরে রবিবার সকালে ঢাল সড়কি ও দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত জাফর বিশ্বাস সমর্থকদের সাথে আলীম বিশ্বাসের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয় ও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে মোরাইল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে জাফর বিশ্বাসের পক্ষের সালাম সিকদারকে প্রতিপক্ষরা একা পেয়ে মাটিতে ফেলে সড়কি দিয়ে কোপালে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান নাছির মো. সেলিম এবং থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। তবে বিএনপি নেতা আলীম বিশ্বাস মোবাইল ফোনে বলেন, তিনি এ ঘটনার কিছুই জানেন না। সংঘর্ষ চলাকালীন সময় তিনি বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন বলে জানান।  
    
বোয়ালমারী থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই সহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ দেওয়া হয়নি বলে জানা গেছে।  

 

বিডি-প্রতিদিন/ ১০ জুলাই, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow