Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১০ জুলাই, ২০১৬ ২০:৪৫
আপডেট :
শিশু অপহরণের চেষ্টা সৎবাবার, পরে উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী:
শিশু অপহরণের চেষ্টা সৎবাবার, পরে উদ্ধার

৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করতে এক শিশুকে অপহরণের চেষ্টা চালিয়েছে তার সৎ বাবা। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট থেকে অপহরণের পর পাবনা নিয়ে যাওয়ার পথে রবিবার বিকেল ৪টার দিকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় ওই শিশুর সৎ বাবাকেও আটক করা হয়েছে।

জানা গেছে, আটক ব্যক্তির নাম রিপন আলী (৩৫)। তিনি পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার বাসিন্দা। তার বাবার নাম পালন আলী। উদ্ধারকৃত শিশুটির নাম আমির হামজা (৪)। সে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার আদমপুর গ্রামের জামিলুর রহমানের ছেলে।

র‌্যাব-৫ এর স্কোয়াড্রন লিডার মোবাশ্বের করিম জানান, শিশুটির মায়ের সঙ্গে আটক রিপন আলীর বিয়ে হয়েছিল। তবে কয়েক বছর আগেই তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর ওই নারী চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সেখানে আমির হামজার জন্ম হয়। তবে সাবেক স্ত্রীর কাছে নিজের প্রায় ৫০ হাজার টাকা থাকার দাবি করে আসছিলেন রিপন আলী। বিভিন্ন সময় ফোন করে এ টাকা দাবিও করেন তিনি। তবে এ টাকা তিনি আদায় করতে না পেরে শিশু আমির হামজাকে অপহরণ করে টাকা আদায়ের ছক করেন। পরে আজ সকালে তিনি ভোলাহাটের আদমপুর থেকে ওই শিশুকে অপহরণ করে নিয়ে আসেন। এরপরই রিপন আলী তার সাবেক স্ত্রীকে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন।
পরে তার পরিবারের সদস্যরা শিশু অপহরণের বিষয়টি র‌্যাব-৫ এ ফোন করে জানান। খবর পেয়ে বিকেল ৪টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা ঢাকাগামী একটি ট্রেনের টয়লেট থেকে শিশু আমির হামজাকে উদ্ধার করে। এ সময় তার সৎ বাবা রিপন আলীকেও আটক করা হয়।

র‌্যাব-৫ এর কর্মকর্তা মোবাশ্বের করিম আরও জানান, শিশুটিকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। আর আটক রিপন আলীর বিরুদ্ধেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

বিডি-প্রতিদিন/ ১০ জুলাই ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow