Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০১৬ ১৭:৫৫
আপডেট :
ঠেকানো যাচ্ছে না লালমনিরহাটে ধরলার ভাঙ্গন
রেজাউল করিম মানিক, লালমনিরহাট:
ঠেকানো যাচ্ছে না লালমনিরহাটে ধরলার ভাঙ্গন

বর্ষা মৌসুমে শুরুতে লালমনিরহাটে হঠাৎ ধরলার ভাঙ্গন প্রকট আকার ধারন করেছে। একে একে গিলে খাচ্ছে রাস্তা-ঘাট,ঘরবাড়ি,আবাদী জমি। ধরলার এই ভাঙ্গনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে নদী পাড়ের মানুষজন।

সোমবার ভোরে লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাটে পাকা রাস্তার কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে। গত বছর বর্ষার শুরুতেই এই পাকা রাস্তার দেড় কিলোমিটার ভেঙ্গে গেলেও টনক নড়েনি পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সড়ক বিভাগের। এ বছর আবার নতুন করে ভাঙ্গন দেখা দেওয়ায় হুমকির মুখে পড়েছে ওই রাস্তার দুই ধারে বসবাসকারী কয়েক শ' বসতি।
কুলাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইদ্রিস আলী জানান, বারবার পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সড়ক বিভাগকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি লেখা হলেও রাস্তাটি রক্ষা ও নদী ভাঙ্গনরোধে কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। ফলে গত বছরের ন্যায় এ বছরও আবারো শুরু হয়েছে নদী ভাঙ্গন। সোমবার ভোরে ভেঙ্গে গেছে পাকা রাস্তাটির সম্মুখ ভাগ। সেই সাথে গত ৭দিনে পানির তোড়ে ভেঙ্গে গেছে ১৩টি বসতবাড়ি।

লালমনিরহাট সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হালিম জানান, রাস্তাটি সড়ক ও জনপদের কিন্তু নদী ভাঙ্গনরোধে সড়ক ও জনপদের কাজ করার কোন অভিজ্ঞতা নেই। তাই সড়ক ও জনপদের রাস্তাটি সংরক্ষন ও নদী ভাঙ্গনরোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে পত্র দিয়ে কাজটি করার অনুরোধ করা হয়েছিল। তাই সঠিক সিদ্ধান্ত না পাওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

লালমনিরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, ধরলা নদীর ভাঙ্গনরোধে বরাদ্দ চেয়ে এক মাস আগেও চিঠি লেখা হয়েছে। কিন্তু কোন সারা মেলেনি।

বিডি-প্রতিদিন/ ১১ জুলাই ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow