Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ১৪:১৩
আপডেট :
পুড়ে অঙ্গার হওয়া লাশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হানিফের
মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি
পুড়ে অঙ্গার হওয়া লাশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হানিফের
স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবু হানিফ

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে অগ্নিকান্ডে কাপড়ের দোকানের মধ্যে পুড়ে অঙ্গার হওয়া লাশটি স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবু হানিফ হাওলাদারের (৪০) বলে অনেকটাই নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। ঘটনার ৯ দিন পরে আজ শুক্রবার সেই পোড়াস্থানে হানিফের দোকানের চাবি পাওয়ায় পুলিশ এমন ধারণা করছে। আবু হানিফ মোরেলগঞ্জ পেৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সদর বাজারের হেনা গার্মেন্টসের মালিক ছিলেন।   

গত ৫ জুলাই ভোররাতে কাপুড়িয়া পট্টিতে আগুন লেগে ৫টি দোকান পুড়ে যায়। এর মধ্যে আগুনের সূত্রপাত হওয়া সানমুন গার্মেন্টসের পিছনের দিকে পাওয়া যায় এক ব্যক্তির দগ্ধ লাশ। ওই রাত থেকেই নিখোঁজ ছিলেন পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পার্শ্ববর্তী হেনা গার্মেন্টসের মালিক মো. আবু হানিফ। ওই সময় লাশটি হানিফের বলে সন্দেহ করলেও সনাক্ত করতে না পারায় হানিফের স্ত্রী থানায় নিখোঁজের জিডি করেন।

পুলিশ একটি পৃথক জিডি করে লাশের পোস্টমর্টেম করিয়ে বাগেরহাট পেৌরসভার মেয়রের মাধ্যমে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে সেখানে দাফন করায়। আজ শুক্রবার কর্ডন করে রাখা ঘটনাস্থলে এক গোছা চাবি পায় পুলিশ। চাবিগুলো হানিফের দোকানের অপর চাবির সঙ্গে মিলে যাওয়ায় পুলিশ ধারণা, লাশটি হানিফের। তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত হানিফের পরিবার থেকে কোনো বক্তব্য বা অভিযোগ পায়নি পুলিশ।
এ সম্পর্কে থানার ওসি (তদন্ত) তারক বিশ্বাস বলেন, চাবি পাওয়ার পরে লাশটি হানিফের বলেই অনুমান করা হচ্ছে। এই ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই একরামুল বলেন, 'পোড়া দোকানগুলোর মধ্যে যেখানে লাশ পাওয়া গিয়েছিল সেই জায়গাটুকু কর্ডন করে রাখা হয়েছিল। তদন্তের ধারাবাহিকতায় আজ ওই স্থানে তল্লাশি চালিয়ে হানিফের দোকানের চাবি পাওয়া গেছে। তাই লাশটি হানিফের বলেই এখন পুলিশ ও স্থানয়ীরা মনে করছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়দের দাবি, হানিফ মাদকাসক্ত ছিলেন। তার সঙ্গীরাও একই পথের। ঘটনার রাতে হানিফ হোটেল হালিমে রাত প্রায় ৩টা পর্যন্ত জুয়া খেলেন। এরপরেই হয়তো চুরি করতে গিয়ে দুর্ঘটনাবশত দোকানে আগুন লাগলে পুড়ে মারা যান হানিফ। প্রাথমিক তদন্তে এমনটিই মনে করছে পুলিশ। আবার অনেকে মনে করছেন, হানিফকে তার বন্ধুরা হত্যা করে দোকানের মধ্যে ঢুকিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/১৫ জুলাই ২০১৬/শরীফ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow