Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ২০:২১
আপডেট : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ২০:৩৯
ভ্রমনে গিয়ে জঙ্গি সন্দেহে আটক চবির ছাত্র আহমেদ নুর
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:
ভ্রমনে গিয়ে জঙ্গি সন্দেহে আটক চবির ছাত্র আহমেদ নুর

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) গণিত বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র আবদুর নুর ভ্রমণে গিয়ে জঙ্গি সন্দেহে পুলিশের হাতে আটক হন। গত মঙ্গলবার মাগুরা জেলার শালিকা থানাধীন একটি মন্দির দেখতে গেলে পুলিশ জঙ্গি সন্দেহে তাকে আটক করে। এ ব্যাপারে বিশেষ ক্ষমতা আইনে শালিকা থানায় একটি মামলা দায়ের হয় বলে জানা যায়।

এর আগে গত ৯ জুলাই শনিবার ভ্রমণের উদ্দেশ্যে কুষ্টিয়া যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা যায়। আবদুন নুর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের হরিণখাইন গ্রামের ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তার পিতা সৌদি প্রবাসী আবদুর রশিদ। দুই ভাই তিন বোনের মধ্যে তিনি তৃতীয়। বড় বোন বিবাহের পর মারা যান।  

স্থানীয় ও চবি সূত্রে জানা যায়, আবদুন নুর ইতোমধ্যে দেশের প্রায় ৫০টির বেশি জেলা ভ্রমণ করেন। ভ্রমণ পিপাসু নুর বন্ধুদের কাছে ‘চট্টগ্রামের ইবনে বতুতা’ হিসেবে পরিচিত। আবদুর নুর পটিয়ার উত্তর হরিণখাইন জনকল্যাণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ৫ম শ্রেণি, চিটাগাং আইডিয়াল স্কুল থেকে ২০০৯ সালে এসএসসি পাস করেন। ২০১১ সালে এইচএসসি পাস করার পর চবির গণিত বিভাগে ভর্তি হন।    

তার ভাই মো. মিজানুর রহমান বলেন, আমার ভাই কখনো এ জাতীয় কোনো কাজে জড়িত ছিলেন না। পড়ালেখার পাশাপাশি ভ্রমণ করাই তার শখ ছিল। সময়-সুযোগ পেলেই বিভিন্ন জায়গা, বন্ধু বান্ধবদের বাড়ি কিংবা ভ্রমণে চলে যায়। ইতোমধ্যে দেশের ৫০টির বেশি জেলায় ভ্রমণ করেছেন। এবারো ভ্রমণে গিয়ে পুলিশ সন্দেহ করে তাকে আটক করে।    

পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উলাহ চৌধুরী বলেন, জঙ্গি সন্দেহে আটক আবদুন নুর ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। তার পরিবারও আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। ইতোমধ্যে তার বিষয়ে আমরা যতটুকু খবর নিয়েছি, তাতে তার জঙ্গি সম্পৃক্ততার প্রাথমিক কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে আমরা একটি পজিটিভ প্রতিবেদন মাগুরা শালিকা থানা পাঠাচ্ছি।  

মাগুরার শালিকা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন, সন্দেহ করে স্থানীয়রা তাকে থানা সংলগ্ন এলাকা থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। তার বিরুদ্ধে বিশেষ নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা (১১/১৩.০৭.১৬) দায়ের হয়েছে। ইতোমধ্যে তাকে আদালতে চালানও দেয়া হয়েছে। তবে তার কাছ থেকে আপত্তিকর কিছুই পাওয়া যায়নি।   

বিডি-প্রতিদিন/ ১৫ জুলাই ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow