Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ১৭:১৪
আপডেট : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ১৭:১৬
নেত্রকোনায় ৫ নিখোঁজের পরিবার থেকে থানায় জিডি
নেত্রকোনা প্রতিনিধি:
নেত্রকোনায় ৫ নিখোঁজের পরিবার থেকে থানায় জিডি

নেত্রকোনা জেলায় নিখোঁজদের তালিকা তৈরী করছে পুলিশ। বিভিন্ন সময়ে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হওয়া এ পর্যন্ত মোট ৫ জনের পরিবার থেকে সাধারণ ডায়রী (জিডি) করা হয়েছে জেলার বিভিন্ন থানায়। সদর উপজেলার মডেল থানায় ৩ জনের এবং পূর্বধলা ও কেন্দুয়ায় দুই জনের নামে নিখোঁজের জিডি হয়েছে।  

পুলিশ জানায়, সদরের নেত্রকোনা মডেল থানায় শহরের কাটলী এলাকার সৈনিক আব্দুস সাত্তারের ছেলে আব্দুল্লাহ আল রাফী (১২) গত ২০১৫ সালের ২৯ ডিসেম্বর থেকে নিখোঁজ রয়েছে। সে কুড়পার ভুইয়াবাড়ি হাফিজিয়া মাদ্রাসায় যাওয়ার পর থেকেই নিখোঁজ হয়। তার আত্মীয় কুড়পার এলাকার মোঃ শামীম আহমেদ নিখোঁজের দুলাভাই পরিচয়ে থানায় জিডি করেন (জিডি নং-১২৮২)।  

মোক্তারপাড়া মসজিদ কোয়ার্টার এলাকার আইয়ুব আলীর পালিত পুত্র আলামিন (১১) নিখোঁজ হলে এ বছরের গত ১০ মার্চ মডেল থানায় (জিডি নং-৪২৪) জিডি করা হয়। আলামিনকে গত কয়েক বছর পূর্বে কুড়িয়ে পেয়ে লালন পালন করছিলেন আইয়ুব আলী।  
সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মনাং গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার ছেলে মাদ্রসা ছাত্র নুরে আলম (২৭) এ বছরের গত ৫ ফেব্রুয়ারী নেত্রকোনা শহরে আসার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে। গত ১৮ জুন তার পিতা ইদ্রিস মিয়া নেত্রকোনা মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন।  

এছাড়া পূর্বধলার ধোবা হোগলা গ্রামের আব্দুল গণির ছেলে ওয়াসিম মিয়া (২০) ২০০০ সালের ৫ এপ্রিল বিদেশ যাওয়ার কথা বলে ঢাকায় আত্মীয় জালালের বাসায় যাওয়ার পর থকে নিখোঁজ রয়েছে। এ ব্যাপারে গত ১২ এপ্রিল আব্দুল গণি পূর্বধলা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি নং-৪০৮) করেছেন।

কেন্দুয়া উপজেলায় চর ক্ষিদিরপুর গ্রামের আব্দুর রবের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (২৫) ২০১০ সালের ১৫ ডিসেম্বর ঢাকায় বোনের বাসায় গিয়ে নিখোঁজ হয়। গত জুলাইয়ের ১০ তারিখ আব্দুর রব কেন্দুয়া থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন (জিডি নং-৩৪৪)।  
 
এ ব্যাপারে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) খান মোহাম্মদ আবু নাসের ৫ জনের নিখোঁজের কথা স্বীকার করে বলেন, 'পুলিশ অধিক তদন্তে রয়েছে। নিখোঁজ ব্যাক্তিদের সর্ম্পকে থানায় জিডি করা হয়েছে। প্রত্যেকটি নিখোঁজের ব্যাপারে একজন এসআই কাজ করছে। তারা কোথায় আছে, তারা কোন জঙ্গি কার্যক্রমের সাথে জড়িত কিনা অথবা রাষ্ট্রবিরোধী কাজে জড়িত আছে কিনা বা সরকার বিরোধী কোন কাজ করছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সকল নিখোঁজদের ব্যাপারে আমরা খোঁজ নিচ্ছি। ইতিমধ্যে কিছু তথ্য পাওয়া গেছে তা তদন্তের স্বার্থে প্রকাশ করা যাবে না। পরবর্তীতে ডিটেইলস জেনে জানানো হবে। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। নিখোঁজদের পরিবারের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে এবং তাদের নজরদারীর ব্যাপরটিও আমারা দেখছি। '

 

বিডি প্রতিদিন/২৩ জুলাই ২০১৬/হিমেল-০৭

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow