Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৫ জুলাই, ২০১৬ ১১:৩৭
আপডেট :
চৌদ্দগ্রামে নকল পণ্য উৎপাদন; ৩ জনের কারাদণ্ড
চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি:
চৌদ্দগ্রামে নকল পণ্য উৎপাদন; ৩ জনের কারাদণ্ড

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম শিল্পনগরীতে বিএসটিআইয়ের অনুমোদনবিহীন নিম্নমানের বিভিন্ন নকল পণ্য উৎপাদন করছে প্রভাবশালী মহল। মিজান ওয়েল মিল, এ ওয়ান ফুড ও তিপানী ফুড প্রোডাক্টস নামের তিনটি প্রতিষ্ঠান এ নকল পণ্য উৎপাদন করছে।  

রোববার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমান আদালত, র‌্যাব ও বিএসটিআই যৌথ অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমান নকল পন্য সামগ্রী জব্দ ও বিনষ্ট করে। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত ৩ জনকে আটক করে ১ বছর করে জেল এবং মিজান ওয়েল মিলসহ ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা করে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহিদুল ইসলাম, র‌্যাব-১১’র মেজর মোস্তফা কায়সার ও বিএসটিআইয়ের ফিল্ড অফিসার রিয়াজ হোসেন মোল্লা জানান, চৌদ্দগ্রাম বিসিক শিল্প নগরীর মিজান ওয়েল মিল, এ ওয়ান ফুড ও তিপানী ফুড প্রোডাক্টস নামের ৩টি অনুমোদনবিহীন প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ভেজাল শিশু খাদ্য, নকল সরিষা ও নারিকেলের তেল, গ্লুকোজ-ডি, বিভিন্ন ব্যান্ডের গুড়ো সাবানসহ বিপুল পরিমান পন্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।  

এ সময় মিজান ওয়েল মিলের সেলসম্যান জাহাঙ্গীর আলম, এ ওয়ান ফুড’র মালিক মহি উদ্দিন ও ট্রিপানী ফুডের ম্যানাজার মাহফুজ আলমকে আটক করা হয়। আটককৃত ৩ জনকে এক বছর করে জেল ও ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।  

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে র‌্যাব সদস্যরা জব্দকৃত ভেজাল পন্য সামগ্রী আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করে। বিএসটিআইয়ের ফিল্ড অফিসার রিয়াজ হোসেন মোল্লা জানান, উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানগুলো দীর্ঘদিন ধরে নকল পন্যসামগ্রী তৈরি করছিল। মিজান ওয়েল মিলের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও মামলা হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানগুলোতে উৎপাদিত পণ্য সামগ্রীর কোনটিরই বিএসটিআইসহ সংশ্লিষ্ট দফতরের কোন অনুমোদন নাই।


বিডি প্রতিদিন/২৫ জুলাই ২০১৬/হিমেল-১০

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow