Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:১৭
অবশেষে পায়রা বন্দরে পণ্য খালাস শুরু
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
অবশেষে পায়রা বন্দরে পণ্য খালাস শুরু

অবশেষে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার পায়রা সমুদ্রবন্দরের অপারেশনাল কার্যক্রম শুরু হয়েছে। রামনাবাদের অভ্যন্তরীণ ইনার চ্যানেল চারিপাড়া পয়েন্টে শনিবার বিকেলে ১২ হাজার ৫০২ মেট্রিকটন ক্লিংকারবাহী মাদার ভ্যাসেল (এমভি) এফ এস বিচ থেকে লাইটার জাহাজ এমভি চান সরদারে ক্লিংকার লোড করার মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

 

মালয়েশিয়া থেকে মাদার ভ্যাসেলটি মদিনা গ্রুপের এ পরিমাণ ক্লিংকার নিয়ে ১৪ আগস্ট বহির্নোঙ্গরে এসে পৌঁছে মাদার ভ্যাসেল এফ এস বিচ। কিন্তু দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে পণ্য এতোদিন খালাস করা যায়নি। লাইটার জাহাজ এমভি চান সরদার ১১শ মেট্রিক টন ক্লিংকার বোঝাই করে আগামী ৮ সেপ্টেম্বর মদিনা গ্রুপের আরও তিনটি জাহাজ হাজী সেলিম-২, হাজী সেলিম-১ ও বেগম সালেহা বাকি পণ্য নিয়ে ঢাকার মেঘনা ঘাটের উদ্দেশে রওনা হবে বলে জানা গেছে।  

দেশের তৃতীয় সমুদ্রবন্দর ‘পায়রা’র পণ্য খালাসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় মিলাদ ও দোয়া মোনাজাতের মধ্য দিয়ে। এসময় বন্দর চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন সাইদুর রহমান, মদিনা গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোলায়মান সেলিম, মদিনা গ্রুপের ডিজিএম মাহাবুব আলম, ডিজিএম কামরুল হাসান, উপদেষ্টা গোলাম হোসেনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।  

মাদার ভ্যাসেল এফ এস বিচ-এর ক্যাপ্টেন ডোয়ান মাই ফু জানান, সাগর মোহনা থেকে এ চ্যানেলের চারিপাড়া পয়েন্টে পণ্যবাহী জাহাজ নিয়ে আসতে নাব্যতা সমস্যায় পড়তে হয়নি, বরং স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করেছেন।  

লাইটার জাহাজ এমভি চান সরদারের মাস্টার নিজাম উদ্দিন বলেন, ‘আমি প্রথম জাহাজে এ বন্দর থেকে পণ্য বহন করতে পেরে আনন্দিত, আপ্লুত। ’ 

তিনি আরও জানান, দুর্যোগকালেও এ বন্দরের রামনাবাদ চ্যানেলে পণ্য খালাস করতে কোনো সমস্যা হবে না।  

পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চিফ হাইড্রোগ্রাফার কমান্ডার এম হাবিব-উল-আলম জানান, বহির্নোঙ্গর থেকে পণ্যবাহী মাদার ভ্যাসেল রামনাবাদ চ্যানেলে নিয়ে আসতে কোনো ধরনের সমস্যা হয়নি। কোনো ধরনের ড্রেজিং ছাড়াই নির্বিঘ্নে পণ্যবাহী জাহাজ খালাস করতে পেরে সবাই আনন্দিত।  

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, আজ রোববার প্রথম পণ্যবাহী জাহাজ ফরচুন বার্ড পণ্য খালাসের জন্য রামনাবাদ চ্যানেলে এসে পৌঁছবে। আরও পণ্যবাহী কয়েকটি মাদার ভ্যাসেল রামনাবাদ চ্যানেলে এসে পৌঁছবে। পায়রা বন্দরের রামনাবাদ চ্যানেলে এখনও পণ্য খালাসের কার্যক্রম চলছে জোরেশোরে।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মধ্য দিয়ে ১৩ আগস্ট দেশের তৃতীয় সমুদ্র বন্দর পায়রার পণ্য খালাস কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

বিডি প্রতিদিন/ ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬/ এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow