Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:১৭
দিনাজপুরে বউ বাজারে উপচে পড়া ভিড়
রিয়াজুল ইসলাম, দিনাজপুর থেকে
দিনাজপুরে বউ বাজারে উপচে পড়া ভিড়

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে দিনাজপুরে বউ বাজারে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এ বাজারে নারী-পুরুষ সকলের কাপড় পাওয়া গেলেও ক্রেতারা সব মহিলা হওয়ায় এই বাজারের নাম বউ বাজার।  

নিজেদের আর্থিক অভাব দূর করতে ও ক্রেতাদের চাহিদা মেটাতে দোকান কর্মচারীরা শহরের বাসুনিয়াপট্রিতে অবস্থিত এই বউ বাজারে বসে প্রতি শুক্রবার (ছুটির দিন)। সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই বউ বাজারের কেনা বেচা চলে। ক্রেতা বিক্রেতার পদচারণায় মুখরিত হয় বউ বাজার। ঈদ উপলক্ষে আজ ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।  

এ বাজারে মূলত মহিলারা আসেন জানিয়ে কাপড় ব্যবসায়ী রহিম জানান, বিক্রি ভাল হয়। প্রতিদিন ২-৩ হাজার টাকার বেশি বিক্রি হয়।

কিভাবে কম মূল্যে কাপড় বিক্রি করছেন জিজ্ঞাসা করলে বউ বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, এখানে যারা ব্যবসা করেন তাদের দোকান ভাড়া, ইলেক্ট্রনিক্স বিল বা খাজনা দিতে হয় না, নেই কর্মচারীদের বেতনও। তাই বাইরে থেকে কাপড় যে দামে কেনা হয় তার উপর কিছুটা লাভ রেখেই সেসব কাপড় বিক্রি করা হয়।  


এই কাপড়গুলোই যখন উন্নতমানের দোকানে বিক্রি হয় তখন সেগুলোর উপর দোকান ভাড়া, কর্মচারীদের বেতন, বিদ্যুৎ বিল ইত্যাদি যোগ করে এসব কাপড়ের মূল্য বেশি হয়ে যায় বলেও জানান তারা।  

কাপড় কম মূল্যে পাওয়া যায় স্বীকার করে কাপড় কিনতে আসা উপশহর এলাকার আঞ্জমান আরা, ঘাসিপাড়ার কাজলি বেগম, কলেজ ছাত্রী আয়শা আকতার বানু এবং হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী তনুসহ অনেকেই জানান, কম মূল্যে কাপড় পাওয়া যায় সেজন্যই প্রতি শুক্রবার এসব দোকানে কাপড় কিনতে আসি। তাছাড়া মেয়েদের জন্য এই বউ বাজার অত্যন্ত নিরাপদ।  

বউ বাজারের পরিচালক বিমল আগরওয়ালা জানান, এখানে অস্থায়ী ২ শতাধিক কাপড়ের দোকানের মালিক দোকানকর্মচারী। তারা বিভিন্ন স্থান থেকে কাপড় কিনে নিয়ে এসে এসব দোকানে বিক্রি করেন। এখানে আগে সাধারণত গরীব ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মহিলারা কাপড় কিনতে আসতেন। কিন্তু বর্তমানে ধনী পরিবারের মহিলারাও আসছেন এখানে কাপড় কিনতে।

ক্রেতাদের নিরাপত্তার বিষয়ে জানতে চাইলে বিমল আগাওয়াল জানান, বউ বাজারের নিরাপত্তায় নিজেদের ব্যবস্থাপনায় গার্ড নিয়োগ করে দেয়া হয়। বাসুনিয়াপট্টির যে রাস্তায় বউ বাজার বসছে সে রাস্তা দিয়ে সকাল থেকে দুপুর পর্যস্ত (বউ বাজার চলাকালীন) যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। ফলে ক্রেতারা স্বাচ্ছন্দে কেনা কাটা করতে পারেন। শুক্রবার সকল মার্কেট বন্ধ থাকায় এ বাজারটি এ এলাকায় বসে।

দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম জানান, শহরের মালদহপট্রি-বাসুনিয়াপট্রি এলাকায় বন্ধের দিন মহিলাদের কেনাকাটার বাজার রাস্তায় বসে বলে আমাদের পক্ষ থেকে কোনো বাধা নেই।  

বিডি প্রতিদিন/ ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬/ এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow