Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:০৪
বরিশালে সালিশ বৈঠকে সংঘর্ষ, কলেজছাত্র নিহত
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল
বরিশালে সালিশ বৈঠকে সংঘর্ষ, কলেজছাত্র নিহত

বরিশাল মুলাদী উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের টুমচর এলাকায় সালিশ বৈঠকে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রকিবুল হাওলাদার (২৩) নামের এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন।

শুক্রবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রব সরদারের বাড়িতে সালিশ বৈঠকে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে, গত বৃহস্পতিবার বিকালে সেলিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রীতি ফুটবল খেলা নিয়ে দু'পক্ষের মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটে।

নিহত রকিবুল মুলাদীর টুমচর গ্রামের বজলুর রহমান হাওলাদারের ছেলে এবং একই উপজেলার সৈয়দ বদরুল হোসেন কলেজের এইচএসসি ১ম বর্ষের ছাত্র ছিল। আহতরা হলেন শরিফুল, ইয়াজ হোসেন ও ইব্রাহিম। এদের মধ্যে শরিফুলকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অপর দুইজনকে মুলাদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মুলাদী থানার ওসি মো. মতিউর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে সেলিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে স্থানীয়রা প্রীতি ফুটবল খেলার আয়োজন করে। খেলা চলাকালে একই এলাকার আমানত চৌকিদারের ছেলে সাদেক তার প্রতিবেশী তরিকুল ও জেহাদকে মারধর করে। এর জের ধরে তরিকুলের খালাতো ভাই শরিফুল সাদেককে পাল্টা মারধর করে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হলে শুক্রবার সকালে সেলিমপুর বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রব সরদারের বাড়িতে দুই পক্ষের উপস্থিতিতে সালিশ বৈঠক বসে।

তিনি জানান, সালিশ বৈঠকে দুই পক্ষের মধ্যে বাদানুবাদের এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এ সময় সাদেক ও তার সহযোগীরা রকিবুল ও শরিফুলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যপুরি কুপিয়ে আহত করে। এতে রকিবুল হাওলাদার ঘটনাস্থলেই মারা যায়। শরিফুলকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় আহত আরও দুইজনকে মুলাদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, সংঘর্ষের পর পরই পুলিশ টুমচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জাহাঙ্গীর সিকদার নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

বিডি-প্রতিদিন/১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/মাহবুব

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow