Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:২৪
আপডেট :
যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর হাত-পা ভাঙলেন স্বামী
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর হাত-পা ভাঙলেন স্বামী

লালমনিরহাট আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়ন সরল খাঁ গ্রামে যৌতুকের টাকা না পেয়ে পিটিয়ে স্ত্রীর হাত ও পা ভেঙে দিয়েছে এক পাষণ্ড স্বামী। শনিবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে। পরে আশংকাজনক অবস্থায় ওই গৃহবধূকে আদিতমারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভতি করে এলাকাবাসী।  

পুলিশ সূত্র জানায়, আদিতমারী উপজেলার সরল খাঁ গ্রামের মনছুর খাঁর ছেলে মোক্তার আলী ভেলার (৩৬) সাথে প্রায় ১৬ বছর পূর্বে সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ এলাকার মৃত অবার আলীর মেয়ে সুফিয়া বেগমের (৩৫) বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য প্রায় সব সময়  নির্যাতন করত যৌতুক লোভী তার স্বামী ও পরিবারের লোকজন। এ নিয়ে সুফিয়ার পরিবারের লোকজনের অভিযোগে চেয়ারম্যান, মেম্বারদের উপস্থিতিতে একাধিকবার স্থানীয়ভাবে শালিস বৈঠক হলেও কোন সুরাহা হয়নি। এর মাঝেই চলে সুফিয়া ও মোক্তার আলীর সংসার। অবশেষে গত ১৬ সেপ্টেম্বর সুফিয়া বেগমের উপর পুনরায় পূর্বের মত শুরু হয় নির্যাতন এবং বাবার বাড়ি থেকে ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা যৌতুক এর টাকা আনতে বলা হয়। কিন্তু তার বাবা গরীব  এত টাকা না দিতে পারায় তার স্বামী, শ্বশুর –শ্বাশুড়িসহ বাড়ীর লোকজন সুফিয়ার উপর  লৌমহর্ষক নির্যাতন চালাতে থাকে।  

এক পর্যায়ে শনিবার মধ্যরাতে  সুফিয়াকে ঘরে বেধে লোহার রড় দিয়ে পিটিয়ে তার বাম হাত ও ডান পা ভেঙ্গে দেওয়া হয়। পরে মৃত ভেবে বাড়ির পাশের বাশঝাড়ে ফেলে দেওয়া হয় সুফিয়াকে। সকালে প্রতিবেশীরা বাশঝাড়ে ওই গৃহবধুকে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সুফিয়াকে উদ্ধার করে আদিতমারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আদিতমারী থানার অফিসার (ইনচার্জ) হরেশ্বর রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬/হিমেল-০৬

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow