Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:১১
সাতক্ষীরায় ঐতিহ্যবাহী গুড়পুকুর মেলার উদ্বোধন
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরায় ঐতিহ্যবাহী গুড়পুকুর মেলার উদ্বোধন

প্রায় সাড়ে তিনশ' বছরের পুরাতন সংস্কৃতি সর্পদেবী মনসা ও বিশ্বকর্মা পূজার মাধ্যমে সাতক্ষীরায় শুরু হয়েছে ঐতিহ্যবাহী গুড়পুকুর মেলা। শহরের পলাশপোলে গুড়পুকুর পাড়ের বটতলায় ও শহরের রাজ্জাক পার্কে বসেছে এই মেলা।

 

আজ সকাল ১১টায় পৌরসভার আয়োজনে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে ফিতা কেটে এমেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা সদর আসনের এমপি মীর মোস্তাক আহম্মেদ রবি। এসময় জেলা পরিষদ প্রশাসক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহম্মেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক এ এফএম এহতেশামুল হক, পৌর মেয়র তাসকিন আহম্মেদ চিশতী, অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার আরিফুল হকসহ কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন। মেলায় বিভিন্ন ধরনের ২০০ স্টল বসানো হয়েছে। মেলার সাথে সাথে বেহুলা লখিন্দরের ভাসান গানের পালা শুরু হয়েছে। সনাতনধর্মী নর-নারীরা সেই বটতলায় পূজা অর্চনা অব্যহত রেখেছেন। নিজেদের মনষ্কামনা পূরণে নানা ধরনের মানত করছেন তারা। তবে গুড়পুকুর মেলার মূল আকর্ষণ ‘কলমের বৃক্ষ’ বেচাকেনা এখনও শুরু হয়নি। ১৫ দিনব্যাপী এই মেলা জমে উঠতে আরও কদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

প্রতি বছর শেষ ভাদ্র মাসের এই মেলা বসে। শহরের বিভিন্ন  প্রান্ত জুড়ে বসে শত শত দোকান পাট। গ্রামীণ লোকজ ঐতিহ্যের পসরা সাজিয়ে চলে বেচাকেনা। সাড়ে তিনশ’ বছর যাবত এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

উল্লেখ্য, বিগত ২০০২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৮টার দিকে মেলা চলাকালীন সময়ে স্টেডিয়ামের দ্য লায়ন সার্কাসে ও শহরের রকসি সিনেমা হলে দফায় দফায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। এঘটনায় পর্যায়ক্রমে ৩ জনের মৃত্যু হয়। সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহী গুড়পুকুর মেলায় ভয়াবহ বোমা হামলার পর থেকে কয়েক বছর মেলা বন্ধ ছিল । এরপর ২০১১ সাল থেকে তা পুনরায় শুরু হলেও মেলার যেন যৌবন ফিরে পাইনি। এখনও সেই অবস্থায় খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে ঐতিহ্যবাহী এই মেলা।  


বিডি-প্রতিদিন/ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow