Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:৩৯
লামায় তুলার বাম্পার ফলনে আশাবাদী কৃষকরা
মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা:
লামায় তুলার বাম্পার ফলনে আশাবাদী কৃষকরা

বান্দরবানের লামায় তুলা চাষের ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন কৃষকরা। ক্ষতিকর তামাক চাষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে তুলা চাষ শুরু করেছে অনেকে।

লামার ২টি ইউনিয়নে ৩২টি প্লটে প্রায় ২শ' হেক্টর জমিতে মাঠের পর মাঠ, বিস্তীর্ণ পাহাড়ি এলাকায় দেশি তুলার পাশাপাশি হাইব্রিড জাতের তুলা চাষ করতে দেখা যায়। দেশের মোট উৎপাদনের এক-পঞ্চমাংশ তুলা বান্দরবান থেকে সংগ্রহ করা যাবে বলে জানিয়েছেন লামা ও বান্দরবানের তুলা উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা।  

মঙ্গলবার লামা উপজেলার গজালিয়া ও রুপসীপাড়া ইউনিয়নে ৩২টি তুলার প্রদর্শনী প্লট পরিদর্শনে আসেন তুলা উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. আবু ইলিয়াছ মিয়া। এসময় তার সফরসঙ্গী ছিলেন, বান্দরবান জোনের প্রধান তুলা উন্নয়ন কর্মকর্তা কৃষিবিদ আব্দুল ওহাব, কটন ইউনিট অফিসার বান্দরবান কৃষিবিদ মো. শফিকুল ইসলাম, কটন ইউনিট অফিসার লামার আব্দুল খালেক। মাঠ পরিদর্শনে সময় পাশে ছিল তুলা চাষী মো. হোসাইন, মো. হালিম, নুরুল ইসলাম, জমির হোসেন, আহমদ নবীসহ আরও অনেকে।  

লামার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের সমভূমি তুলা চাষী মো. হোসাইন জানান, পূর্বে এসব জমিতে তামাক চাষ করা হত। তুলা চাষে সাফল্য পাওয়ায় এখন বিস্তীর্ণ মাঠে উন্নত জাতের তুলার চাষ করা হচ্ছে। এক বিঘা জমিতে তুলা চাষ করতে ১০ থেকে ১৪ হাজার টাকা খরচ হয়। বিঘা প্রতি ১১ থেকে ১২ মণ তুলা উৎপাদন করা যায়। যার বাজার মূল্য প্রায় ৩০ হাজার টাকা। সরকারী সহায়তা পেলে তুলা চাষের সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে পার্বত্য এলাকায় পতিত জমিতে ব্যাপক তুলা চাষ করা যাবে।  

তুলা উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. আবু ইলিয়াছ মিয়া জানান, চলতি মৌসুমে লামা ইউনিটের অধীনে ২শ' হেক্টর জমিতে দেশী ও হাইব্রিট জাতের সমভূমি তুলা চাষের আবাদ করা হয়েছে। চাষের গুণগত মান ভাল। কোন প্রকার প্রাকৃতিক বিপর্যয় না হলে ভাল ফলন হবে বলে আমরা আশাবাদী। লামার চাষীরা তামাক চাষে অভ্যস্থ ছিল। সময় পরিবর্তনের সাথে সাথে কৃষিপণ্য উৎপাদনের ধরণ পাল্টিয়েছে। এখন তামাক চাষীরা তামাক চাষ না করে তুলার চাষ করছে। এ অঞ্চলের মাটি তুলা চাষের উপযোগী হওয়ায় চাষীরা তুলা চাষের দিকে ঝুঁকছেন।  
যেহেতু বান্দরবানে তুলা চাষের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে, তাই পরিকল্পিত এবং বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে এখানে তুলা চাষ করা যেতে পারে। সমভূমির মত পাহাড়ের ঢালে তুলা চাষ খুবই লাভজনক। লামার মাটি ও পরিবেশ তুলা চাষের জন্য উপযোগী।  


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow