Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:০৯
আপডেট :
টেকনাফ স্বামীর ছুরিকাঘাতে ৪ সন্তানের জননী খুন
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:
টেকনাফ স্বামীর ছুরিকাঘাতে ৪ সন্তানের জননী খুন

কক্সবাজারের টেকনাফে স্বামীর ছুরিকাঘাতে ৪ সন্তানের জননী রশিদা বেগম (৩০) নামে এক গৃহিণী খুন হয়েছে। এ ঘটনায় স্বামী মো. হোসন মিস্ত্রি পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন পলান পাড়া এলাকায় এক ভাড়া বাসায় এ হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।  

ঘটনার পর পিঠে ছুরিকাঘাত আহত রশিদা ছটফট করতে থাকে। এ সময় তাকে দ্রুত টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কতব্যরত চিকিৎসক আহতকে কক্সবাজার রেফার করেন। কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।  

এদিকে ময়নাতদন্তের পর বিকালে নিহতের লাশ টেকনাফে নিয়ে আসা হয়। নিহতের ভাই আব্দুর রহমান জানান, তার বোন পার্শ্ববতী আব্দুস শুক্কুরের ভাড়া বাসায় পূর্বের স্বামীর ৪ সন্তানসহ দ্বিতীয় স্বামীর সাথে বসবাস করতেন। স্বামীর ছুরিকাঘাতে তার বোনের মৃত্যু ঘটেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে কী কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তা তাদের বোধগম্য হচ্ছে না।

নিহতের সন্তান ও আত্নীয়-স্বজন জানান, ৩ বছর আগে উখিয়া উপজেলার কোটবাজার তুতুরবিল এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে রাজমিস্ত্রি মো. হোসনের সাথে বিয়ে হয় রশিদার। বিয়ের মাস ছয়েক পর একটি মানব পাচার মামলায় সে কারাগারে যায়। প্রায় আড়াই বছর হাজত বাসের পর মাস ছয়েক পূর্বে সে ছাড়া পেয়ে পুণরায় স্ত্রীর সাথে ঘর সংসার করতে থাকে। এর কিছুদিন পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হলে আত্নীয় স্বজনের মধ্যস্থতায় তা সমাধান হয়।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ জানান, এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow