Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:০০
দিনাজপুরে ৪ মাদকসেবী-জুয়াড়ির কারাদণ্ড
দিনাজপুর প্রতিনিধি:
দিনাজপুরে ৪ মাদকসেবী-জুয়াড়ির কারাদণ্ড

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ২জন ও পার্বতীপুরের ২জন মাদকসেবী ও জুয়াড়িকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বীরগঞ্জের মোঃ মকফুর রহমান (৪৬) নামে এক মাদকসেবীকে ৬মাসের এবং নীলকন্ঠ দেব শর্মা (৩৭) নামে এক জুয়াড়িকে ৭দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।


 
মোঃ মকফুর রহমান বীরগঞ্জ পৌরশহরের হরিবাসর পাড়া এলাকার মোঃ রহিম উদ্দিনের ছেলে এবং নীলকন্ঠ দেব শর্মা উপজেলার ভোগনগর ইউনিয়নের গান্ডারা গ্রামের মৃত পুলিন দেব শর্মার ছেলে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ আলম হোসেন ভ্রাম্যমান আদালতে এ রায় প্রদান করেন।

অপরদিকে, বৃহস্পতিবার পার্বতীপুরের পৃথক দুটি মামলায় দুই ব্যক্তিকে কারাদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। এদের মধ্যে পার্বতীপুর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের ছোট বৃত্তিপাড়া গ্রামের খতিবর রহমানের ছেলে নুর হোসেন (৩০) মাদক সেবনের অপরাধে ১ বছর এবং মন্মথপুর ইউনিয়নের তাজনগর হাজিপাড়া গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে আঃ সামাদ (৪৫) কে ঋণ খেলাপির দায়ে করা সার্টিফিকেট মামলায় ৬ মাসের সাজা প্রদান করেন।

বীরগঞ্জ থানার এএসআই প্রভাত কুমার রায় জানান, বুধবার রাতে পৌরশহরের উল্লাস সিনেমা হল এলাকায় গাঁজা সেবনের সময় মোঃ মকফুর রহমানকে পুলিশ হাতে নাতে আটক করে এবং বৃহস্পতিবার সকালে ভোগনগর ইউনিয়নের সিংড়া শালবন এলাকায় একদল জুয়ারী জুয়া খেলার সময় পুলিশ অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জুয়ারীরা পালিয়ে যাবার সময় ভোগনগর ইউনিয়নের গান্ডারা গ্রামের নীলকন্ঠ দেব শর্মাকে আটক করে। আটকদের সকালে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে ভ্রাম্যমান আদালতে বিজ্ঞ বিচারক মকফুর রহমানকে ৬মাস এবং নীলকন্ঠ দেব নাথ শর্মাকে ৭দিনের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

অপরদিকে, পার্বতীপুর মডেল থানার কর্তব্যরত উপ-পরিদর্শক মানিক উদ্দীন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে মাদক সেবনের সময় পার্বতীপুর শহরের খোলাহাটি রোড থেকে নুর হোসেন ও বুধবার রাতে ভবেরবাজার এলাকা থেকে আঃ সামাদ আটক করা হয়। আটকের পর পরই ভ্রাম্যমান আদালত দু’জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার মাহমুদুর রহমান।

বিডি-প্রতিদিন/ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow