Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:২৭
বড়ইয়া ডিগ্রী কলেজ
ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম, অতঃপর বরখাস্ত শিক্ষক
ঝালকাঠি প্রতিনিধি:
ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম, অতঃপর বরখাস্ত শিক্ষক

ঝালকাঠির রাজাপুরের বড়ইয়া ডিগ্রী কলেজে ছাত্রীকে যৌনহয়রানীর অভিযোগে ওই কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক নীল কমল সানাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ওই শিক্ষক কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন।

এরপর তাদের দীর্ঘদিনের কথোপকথন মোবাইল ফোনে রেকর্ড করা হয়। যে রেকর্ড ছিল ওই ছাত্রীর মোবাইলেও। সম্প্রতি ওই ছাত্রী তার নিজ এলাকা পুটিয়াখালিতে একটি মোবাইলের দোকানে গান ডাউনলোড করতে গেলে শিক্ষার্থীর মেমোরিকার্ড থেকে দোকানের কর্মচারি ওই কথোপকথন কপি করে রাখেন। এরপর ফোন রেকর্ড ওই কম্পিউটার থেকে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি কলেজ কর্তৃপক্ষ অবহিত হলে বড়ইয়া ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ মনিরউজ্জামান এ বিষয়টি কলেজ সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌনহয়রানির অভিযোগ তোলেন। এরপর গত ১৪ সেপ্টেম্বর একটি সভায় কলেজ অধ্যক্ষ ও সভাপতির উপস্থিতিতে ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। কলেজ শিক্ষক নোটিশের কোন জবাব প্রদান না করায় গত ২১ সেপ্টেম্বর কলেজের নীতি নির্ধারণী পর্ষদ তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে। বিষয়টি প্রকাশ পায় আজ রবিবার।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত কলেজ শিক্ষক নীল কমল সানার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বড়ইয়া ডিগ্রী কলেজের একজন প্রভাষক বলেন, 'যার ব্যাপারে যৌনহয়রানীর অভিযোগ করা হচ্ছে তার কোন অভিযোগ ছাড়াই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এটা অনৈতিক ও নিয়ম বহির্ভূত। '

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কলেজ সভাপতি শাহ মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘স্থানীয়দের একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই শিক্ষককে শোকজ করে তার কাছে জবাব চাওয়া হয়েছে। সে সঠিক কোন জবাব না দেওয়ায় তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ’

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow