Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:০৫
গৌরনদীতে কলেজ পড়ুয়া গৃহবধুর আত্মহত্যা
আমিনা আকতার সোমা, গৌরনদী (বরিশাল)
গৌরনদীতে কলেজ পড়ুয়া গৃহবধুর আত্মহত্যা

স্বামীর দেয়া মিথ্যা অপবাদ সইতে না পেরে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার উত্তর বিল্বগ্রাম গ্রামের হাফিজা আক্তার (২০) নামের এক কলেজ পড়ূয়া গৃহবধু তার প্রবাসী স্বামীর কাছে চিরকুট লিখে রেখে আজ সোমবার ভোর রাতে বাড়ির পাশের একটি বকুল গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে।

নিহতের স্বজনদের সূত্র হতে জানা গেছে, উপজেলার উত্তর বিল্বগ্রাম গ্রামের তৈয়ব আলী উকিলের পুত্র রুবেল উকিলের সাথে একই গ্রামের আদম আলী মল্লিকের কলেজ পড়ুয়া মেয়ে হাফিজা আক্তারের দীর্ঘদিন যাবত মন দেয়া নেয়া চলছিল।

তাদের এ মন দেয়া নেয়া এক পর্যায়ে শারিরিক সম্পর্কে গড়ায়। এতে হাফিজা গর্ভবতি হয়ে পড়ে। এ খবর রুবেলকে জানিয়ে হাফিজা তাকে বিয়ে করার জন্য রুবেলকে চাপ দেয়। রুবেল এতে অস্বীকৃতি জানায়। হাফিজা বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বরসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের জানালে গত একমাস পূর্বে তারা এক গ্রাম্য শালিশ বৈঠকে বসে রুবেলের সাথে হাফিজার বিয়ে পড়িয়ে দেয়।

বিয়ের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই বেকার যুবক রুবেল তার নব বিবাহিতা স্ত্রীকে রেখে কাজের সন্ধানে বাহরাইনে চলে যায়। প্রবাসী কর্ম জীবনে প্রবেশ করেই রুবেল তার স্ত্রী হাফিজাকে ত্যাগ করার উদ্দেশ্যে তার বিরুদ্ধে নানা কুৎসা রটাতে থাকে।

গত রবিবার দিবাগত রাতে রুবেল একাধিক বার স্ত্রী হাফিজার সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলে। এ সময় রুবেলের সাথে তার ঝড়রাঝাটি হয়। এরপর স্বামী রুবেলের কাছে একটি চিরকুট লিখে রেখে ওইদিন ভোর রাত সাড়ে ৩টার পরে (রবিবার দিবাগত সোমবার ভোররাত) হাফিজা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে গৌরনদী মডেল থানার ওসি আলাউদ্দিন মিলন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পৌছে নিহত গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান হয়।

 

বিডি-প্রতিদিন/২৬ সেপ্টেম্বর,২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow