Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:৩৯
বগুড়ায় আগামজাতের শিম চাষ করে সাফল্য
আব্দুর রহমান টুলু, বগুড়া
বগুড়ায় আগামজাতের শিম চাষ করে সাফল্য

বগুড়ায় আগামজাতের শিম চাষ শুরু হয়েছে। শীতের আগমনের আগেই শিম চাষ করে লগ্নিকৃত টাকা আয়ের পর এখন লাভের অংক গুণছেন জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদরের জয়পুরপাড়ার গোলজার হোসেন বাবলু (৬০)। অসময়ে জমিতে শিম চাষ করে গ্রামীণ জনপদে নতুন দিগন্ত সৃষ্টি করেছে।

জানা যায়, বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা। এই উপজেলায় শীত মৌসুমে বিভিন্ন রবি শস্যসহ সবজির সাথে শিমের চাষ ব্যাপক হারে হয়ে থাকে। উপজেলায় এবারই প্রথম আগামজাতের শিম চাষ হয়েছে। উপজেলা সদরের জয়পুরপাড়ার মৃত জহির উদ্দিন প্রামানিকের পুত্র গোলজার হোসেন বাবলু আগামজাতের শিম চাষ করে ইতোমধ্যে তিনি বাজারে বিক্রি শুরু করেছেন। তিনি গ্রীষ্মের কাঠফাটা রোদের মধ্যে নিজ এলাকায় ২ বিঘা জমিতে অটো হাইব্রিড জাতীয় শিম চাষ করেন।  

শিম চাষি গোলজার হোসেন বাবলু জানান, পত্রিকার মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে পাবনার মুলাডুলি গ্রামে গিয়ে অটো হাইব্রিড শিম চাষের পদ্ধতি জেনে নেন। চাষ পদ্ধতি শেখার পর মুলাডুলি গিয়ে ৩শ' ৫০ টাকা কেজি ধরে ২ হাজার ৫শ' টাকার অটো হাইব্রিড শিমের বীজ ক্রয় করেন। ক্রয়কৃত শিমের বীজগুলো জ্যৈষ্ঠ মাসে তার বাড়ির পাশে ২ বিঘা জমিতে রোপন করে পরিচর্যা শুরু করেন। বীজগুলো থেকে চারা বের হয়। শিমক্ষেতের যত্ন করার এক পর্যায়ে শিমের চারা বড় হলে মাচা তৈরি করেন। সার-পানি দিয়ে পরিচর্যার পর শ্রাবণের শেষের দিকে ফুল থেকে পূর্ণাঙ্গ ফল হয়ে তা শিমে রূপান্তরিত হয়।  

তিনি আরও জানান, তার ২ বিঘা জমিতে অটো হাইব্রিড শিম চাষ করতে বীজ, সার, শ্রমিক ও অন্যান্য উপকরণ ক্রয় বাবাদ প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ইতোমধ্যেই তিনি তার রোপনকৃত জমি থেকে শিম উত্তোলন শুরু করেছেন। তা বাজারে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রিও করেছেন। বর্তমানে প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১ মণ ৫ কেজি করে শিম জমি থেকে উত্তোলন তা স্থানীয় হাটে বিক্রি করে থাকেন। এতে তিনি প্রায় লক্ষাধিক টাকার শিম বিক্রয় করেছেন বলে জানান। উপজেলায় কিছুটা শীতের আমেজ থাকায় শিম ক্ষেত আরও সতেজ হয়েছে। তিনি আশা করছেন এই শীত মৌসুমে গাছগুলোতে ফলন আরও বাড়বে। আগামী চৈত্র মাস পর্যন্ত গাছগুলো থেকে শিমের ফলন পাওয়া যাবে। এতে তার খরচ বাদ দিয়েও প্রায় ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা তার আয় হবে বলে আশা করছেন। অসময়ে এই শিম চাষ করায় তিনি এলাকায় নতুন দিগন্ত সৃষ্টির পাশাপাশি এলাকার সব শ্রেণির মানুষের কাছে তার পরিচিতি ঘটেছে। অসময়ে এই অটো হাইব্রিড শিম চাষ করে লাভবান হওয়ার আশায় অনেকেই তার কাছে থেকে পরামর্শ নিচ্ছেন।

 

বিডি-প্রতিদিন/ ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow