Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:৩৮
বগুড়া কারাগারে ধারণ ক্ষমতার তিনগুণ বন্দী
আব্দুর রহমান টুলু,বগুড়া:
বগুড়া কারাগারে ধারণ ক্ষমতার তিনগুণ বন্দী

বৃটিশ আমলে নির্মিত বগুড়া জেলা কারাগারে ধারণ ক্ষমতার তিনগুণ বন্দী অবস্থান করছেন। কারাগারে আসামির সংখ্যা বাড়লেও বাড়েনি টয়লেট, বাথরুমসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা।

সেই সাথে নিজস্ব ডাক্তার না থাকায় চিকিৎসা সেবাও ঠিকমতো দেওয়া হয় না। তবে কারাগার সম্প্রসারণ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এ অবস্থা আর থাকবে না বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।  

জানা যায়, বৃটিশ শাসনামলে শহরের জলেশ্বরী তলায় করতোয়া নদীর পশ্চিম তীরে ১৮৮৩ সালে বগুড়া জেলা কারাগার নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের পর থেকে কয়েকবার সংস্কার করা হলেও এটি আর সম্প্রাসরণ করা হয়নি। ফলে ধারণ ক্ষমতা যা ছিল তাই আছে। বগুড়া জেলা কারাগারে বন্দী ধারণ ক্ষমতা ৭০৮ জন। বর্তমানে বিভিন্ন অপরাধে জেলা কারাগারে বন্দী রয়েছেন দুই হাজার ৬০ জন। এর মধ্যে মহিলা ৯৭ জন, ও বাকিরা পুরুষ। বন্দীদের মধ্যে একজন মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত, বিভিন্ন মেয়াদি দন্ডপ্রাপ্ত ৬০৫ জন ও বাকিরা বিচারাধীন মামলার আসামি।

বগুড়া জেল সুপার মোকাম্মেল হক জানান, বগুড়া জেলা কারাগারে ধারণ ক্ষমতার তিনগুন বন্দী থাকলেও কোন সমস্যা হচ্ছে না। কারাগারে নতুন একটি মহিলা ওয়ার্ডসহ সম্প্রাসারণ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ধারণ ক্ষমতা ২ হাজার হবে। প্রস্তাবটি ইতোমধ্যে কারা অধিদপ্তরের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গেছে। আশা করি অচিরেই প্রকল্পটি অনুমোদন পাবে। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে বন্দীদের অনেক সমস্যা কেটে যাবে।

বিডি-প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow