Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫১
১০ টাকার চাল থেকে বঞ্চিত ফুলবাড়ীর ১২শ' পরিবার
মোঃ রিয়াজুল ইসলাম, দিনাজপুর:
১০ টাকার চাল থেকে বঞ্চিত ফুলবাড়ীর ১২শ' পরিবার

১০ টাকা দরের চাল পাওয়া থেকে বঞ্চিত হলেন ১২শ' হতদরিদ্র পরিবার। সরকারের বিশেষ কর্মসূচির আওতায় সারা দেশে ১০টাকা দরে চাল বিক্রি শুরু করে, কিন্তু সে সুযোগ পাননি দিনাজপুরের ফুলবাড়ীর শিবনগর ইউপির ১২শ দরিদ্র পরিবার।

উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা বলছেন, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান সময়মত উপকার ভোগীদের তালিকা সরবরাহ না করায় কার্ড দেয়া সম্ভাব হয়নি। আর ইউপি চেয়ারম্যান বলছেন, হতদরিদ্রের তালিকা গত ২৮ আগস্ট জমা দেওয়ার পরেও সেপ্টেম্বরে চাল পাননি দরিদ্র পরিবারগুলো।

 শিবনগর ইউনিয়নের হতদরিদ্র আব্দুস ছাত্তার, ইয়াছিন আলী অভিযোগ করে বলেন, ১২শ' পরিবারের বরাদ্ধ থাকলেও ইউপি চেয়ারম্যান ৫ হাজার লোকের ছবি তুলেছে এবং ছবি তোলা বাবদ প্রত্যেকের নিকট ৩০ টাকা থেকে ৫০টাকা পর্যন্ত খরচ বাবদ গ্রহণ করেছে। ছবি তোলার খরচ দিয়েও উপকার ভোগ করতে পারে নাই দরিদ্র পরিবারগুলো।

এ ব্যাপারে শিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ চৌধুরী বিপ্লব জানান, হতদরিদ্রের তালিকা গত ২৮ আগস্ট জমা দেওয়া হয়েছে কিন্তু তার পরেও সেপ্টেম্বর মাসে চাল পাননি দরিদ্র পরিবারগুলো। জমা দেওয়ার নির্দেশনা অনুযায়ী তালিকা জমা দেওয়া হয়নি কেন এ প্রশ্নের জবাবে ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, এই ইউনিয়নের জনসংখ্যা বেশি তাই তালিকা তৈরি করতে বিলম্ব হয়েছে।

ফুলবাড়ী উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মধুশোধন দত্ত জানান, সরকারী সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১০টাকা দরে চাল এ উপজেলায় মাসিক ৭ হাজার মে.টন বিক্রির বরাদ্ধ হয়। জনসংখ্যা হারে বরাদ্ধ অনুযায়ী শিবনগর ইউনিয়নে ১২শ' পরিবারের জন্য ৩৬ মে.টন চাউল বরাদ্ধ হয়। সময়মত শিবনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সেই তালিকা দেননি। ২৮ আগষ্ট চেয়ারম্যান তালিকা দিলেও সেই তালিকায় উপকারভোগির ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি ছিল না। যার কারণে সময়মত উপকারভোগীর কার্ড তৈরি করা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এহেতেশাম রেজা জানান, তালিকা জমা দেওয়ার জন্য বারবার চেয়ারম্যানকে অনুরোধ করা সত্বেও চেয়ারম্যান সেই তালিকা জমা না দেওয়ায় উপকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে ওই ইউনিয়নের ১২শ' দরিদ্র পরিবার। আর জমা ২৮ সেপ্টেম্বর  দিলেও সেইসব তালিকা ক্রটিপূর্ণ থাকায় সমস্যার সৃষ্টি হয়।

বিডি-প্রতিদিন/ ০২ অক্টোবর, ২০১৬/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow