Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫৭
প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় ভালুকায় হাসপাতাল বন্ধ
ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় ভালুকায় হাসপাতাল বন্ধ

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মৃত্যুর ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে ভালুকার অবস্থিত বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তাহমিনা জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।

ওই হাসপাতালের কর্মচারী উপজেলার মোহনা গ্রামের আনিস উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলামকে (৩০) আটক করে পাঁচ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী মেজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আফরোজা আখতার।

ওই সময় হাসতাল থেকে বিভিন্ন মালামাল জব্দ করা হয়।

ভ্র্যাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী মেজিস্ট্রেট, সহকারি কমিশনার (ভূমি) আফরোজা আখতার জানান, হাসপাতালে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ, অপারেশনসহ বিভিন্ন চিকিৎসায় ময়লাযুক্ত যন্ত্রপাতি ব্যবহার, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র উপস্থাপনে ব্যর্থ হওয়াসহ ভুল চিকিৎসায় অহরহ রোগী মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতাল সিলগালা করে বিভিন্ন মালামাল জব্দ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সাতেঙ্গা গ্রামের আছমা খাতুনের প্রসব ব্যথা দেখা দিলে তাকে তাহমিনা জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়গনিস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়। ক্লিনিকের মালিক ডা. মোশারফ হোসেন রোগীর স্বজনদের বলেন, জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন লাগবে। সিজারে আছমা কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। অপারেশনের পর আছমার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় মোশারফ হোসেন পরপর আরো দুই বার অপারেশন করেন। অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের পরামর্শে আছমাকে  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাপাতালে নেয়া হয়। সেখানে আছমাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

 

বিডি প্রতিদিন/৬ অক্টোবর, ২০১৬/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow