Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:৫১
নৈশপ্রহরী হত্যার ঘটনায় তিন ডাকাতসহ গ্রেফতার ৬
নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া
নৈশপ্রহরী হত্যার ঘটনায় তিন ডাকাতসহ গ্রেফতার ৬

বগুড়ার কাহালু উপজেলায় দুই নৈশপ্রহরীকে হত্যা করে ডাকাতি ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম চুরির দুটি পৃথক মামলায় পুলিশ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৩ জন সদস্য ও সহযোগীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল বুধবার রাতে বগুড়া শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ডাকাতিকালে লুণ্ঠিত মালামালও উদ্ধার করে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান সংবাদ সম্মেলনে জানান, ২৬ আগস্ট বগুড়ার কাহালু উপজেলার পোড়াপাড়া বিমানবন্দর এলাকার পমসার্স এ রহমান মেটাল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপের নাইট গার্ড আব্দুল জোব্বারকে (৫৫) হত্যা করে ডাকাতদল। এরপরে ওই ওয়ার্কসপে দুই ঘণ্টা ধরে ডাকাতি করে ৭টি বৈদ্যুতিক মোটর, ১টি সাব-মার্সিবল পাম্প, ১টি ওয়েল্ডিং মেশিন, ১টি জেনারেটর, অফিসের সিসি ক্যামেরা, ৩টি অ্যালুমিনিয়ামের ডাইস, ১টি স্ট্যান্ডফ্যান, ব্যাংকের চেক বহি লুণ্ঠন করে কারখানার দক্ষিণ পাশের গেট দিয়ে পালিয়ে যায়। তারা একটি পিকআপে করে মালামালগুলো বগুড়া শহরের কালিতলায় জনৈক জিবুর নিকট চল্লিশ হাজার টাকায় বিক্রি করে। এছাড়া একই উপজেলায় গত ৯ সেপ্টেম্বর একই উপজেলা পাবহারা গ্রামে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারের তামার তার চুরি করে নেয়ার পথে ওই এলাকার অপর এক নৈশ প্রহরী আবুল কালাম খুন হয়। এই দুটি ঘটনায় আন্তঃ জেলা দুটি ডাকাতদলের সদস্যরা জড়িত বলে জানা যায়। এনিয়ে পরে তদন্ত করে ডাকাতির মামলায় প্রথমে বগুড়ার গাবতলি উপজেলার কদমতলি গ্রামের সেলিমকে গ্রেফতার ও পরে ডাকাত দলের আরও ২ সদস্যকে গ্রেফাতার করে পুলিশ। তারা পুলিশের কাছে ডাকাতি চুরি ও দুই নৈশ প্রহরীকে হত্যার কথা স্বীকার করে। তাদের তথ্যানুযায়ী শহরের মেরিনা মার্কেট কালিতলা এলাকা থেকে ডাকাতির লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার ও ডাকাতির মালামাল ক্রেতা ৩ জনকে গ্রেফতার করে।  

গ্রেফতারকৃতরা হলেন: আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য বগুড়ার গাবতলী থানার কদমতলী গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে সেলিম (২০), বগুড়া সদর থানার ছয়পুকুরিয়া (গোদারপাড়া)’র নায়েব আলীর ছেলে সিএনজি ড্রাইভার বাবুল প্রাং (৪৫), কাহালু থানার শান্তা গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে আছির এবং তাদের সহযোগী বগুড়া শহরের চকসূত্রাপুর হাড্ডিপট্টিতে অবস্থিত এসএম এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মৃত সৈয়দ আবুল কালাম আজাদের ছেলে এসএ মোরশেদ ওরফে তুলিপ (৪৫) ও তার ভাই রেদওয়ানুল মোরশেদ ওরফে রাহাদ (৩৩) ও বগুড়া শহরের কালিতলা উত্তর কাটনারপাড়া’র মৃত মজহারুল হকের ছেলে মাসুদুল হক জিবু।


বিডি-প্রতিদিন/ ০৬ অক্টোবর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow