Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৩২
সাতক্ষীরায় পাওয়া যায়নি নিহত জেএমবি অর্থদাতার বাড়ি
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরায় পাওয়া যায়নি নিহত জেএমবি অর্থদাতার বাড়ি

সাভারের আশুলিয়ায় শনিবার রাতের অভিযানে নিহত জেএমবির অর্থদাতা জঙ্গি আব্দুর রহমান ওরফে আয়নুলের বাড়ি সাতক্ষীরায় বলে র‌্যাব পক্ষ থেকে দাবি করা হলেও সাতক্ষীরায় পুলিশের অনুসন্ধানের তার বাড়ির খোঁজ পাওয়া যায়নি।

রবিবার দুপুরে সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন জঙ্গি আবদুর রহমান বিষয়ক সর্বশেষ রিপোর্ট জানাতে তার সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করেন। সেখানে তিনি বলেন, কুশখালি এলাকায় মো. আবদুল্লাহের ছেলে আবদুর রহমান নামের কোনো জঙ্গির সন্ধান পাওয়া যায়নি। এমনকি ঢাকায় নিহত ব্যক্তির পাসপোর্টে দেওয়া ছবিও এ এলাকার কেউ সনাক্ত করতে পারেননি।

আশুলিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ছাদ থেকে লাফিয়ে পালাতে গিয়ে আটক ও পরে মারা যাওয়া নব্য জেএমবির অর্থদাতার নাম নিয়ে সৃষ্ট বিভ্রান্তি দুরীকরণে সাতক্ষীরা পুলিশ তৃণমূল পর্যায়ে তদন্ত শুরু করে। শনিবার রাতভর সাতক্ষীরার সীমান্ত গ্র্রাম কুশখালিতে গিয়ে পুলিশ বাড়ি বাড়ি খোঁজ নেয়। এর আগে পুলিশের কাছে পৌঁছানো এক বার্তায় বলা হয় আশুলিয়ায় নিহত অর্থদাতা জঙ্গির নাম আবদুর রহমান। তার পিতার নাম আবদুল্লাহ। তার বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুশখালি গ্রামে। পুলিশ সেই ‘আবদুর রহমান’ বাড়ি খুঁজে পেতে তৎপর হয়ে ওঠে।

রাতভর তদন্ত শেষে সাতক্ষীরার সদর থানার ওসি ফিরোজ মোল্যা জানান, কুশখালির ভ্যানচালক আবদুল্লাহর ছেলের নাম রাকিবুল ইসলাম (২৪)। আবদুর রহমান নামে তার কোনো ছেলে নেই। নিজ গ্রামের মক্তবে লেখাপড়া করে ভ্যান চালাতো রাকিবুল। বিএনপি সমর্থক পরিবারটির সদস্য রাকিবুল হেফাযতে ইসলামে যোগ দেয়। সে এলাকায় খানিকটা দুর্ধর্ষ বলে পরিচিত ছিল। তার বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারির ঘটনাবলীর পর একাধিক নাশকতার মামলা হয়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ। বাড়ির সাথে তার যোগাযোগ কম। তিনি আরও জানান নিহত জঙ্গি আবদুর রহমানের ছবি নিয়ে কুশখালি ইউনিয়নের কয়েক গ্রাম চষে বেড়িয়েছেন পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। এই ছবির লোকটি তাদের এলাকার নয় বলেও গ্রামবাসী নিশ্চিত করেছেন। একই তথ্য দিয়েছেন স্থানীয় চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইউসুফ আলম। তারা নিশ্চিত করেছেন তাদের এলাকায় আবদুল্লাহ নামের যে দু'জন লোক রয়েছেন তাদের কারও ছেলের নাম আবদুর রহমান নয়।

এদিকে কুশখালির রাকিবুলের বাবা আবদুল্লাহ জানান, তিনি পেশায় একজন ভ্যান চালক। তিনি ভারতীয় গরুর রাখালও। তার ছেলে রাকিবুল ইসলাম চট্টগ্রামে একটি লবণ কারখানায় চাকুরি করেন। আজ রবিবার সকালেও তার সাথে তার কথা হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি তার ছেলের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর সাংবাদিকদের দিয়ে তার সাথে কথা বলেন। রাকিবুলের মায়ের নাম মর্জিনা খাতুন। দুই বোন হাসনুয়ারা ও রউফুনারা। আবদুর রহমান নামের কোনো ছেলে তার নেই বলে জানান আবদুল্লাহ। তাছাড়া রাকিবুলের বয়স ২৪ এর বেশি নয়। সে অবিবাহিত বলেও জানান তিনি।

অপরদিকে, আশুলিয়ায় নিহত জঙ্গি আবদুর রহমান বিবাহিত এবং তার তিন সন্তান আছে বলে র‌্যাব-৪ এর রবাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমে প্রচারিত ও প্রকাশিত হয়েছে।


বিডি-প্রতিদিন/০৯ অক্টোবর, ২০১৬/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow