Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:২৭
আকাশের মা-বোন জেলে, বাবা নিখোঁজ
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
আকাশের মা-বোন জেলে, বাবা নিখোঁজ

গাজীপুরের পাতারটেকে নিহত জঙ্গী ফরিদুল ইসলাম আকাশই কি সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের পশ্চিম বড়ইতলী গ্রামের ফরিদুল ইসলাম। এনিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে সংশয় দেখা দিয়েছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে আকাশ বলে দাবি করলেও এলাকাবাসীর কাছে তিনি শহিদুল ইসলাম নামে পরিচিত। আর গত দেড় ধরে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। তার পরিবারের অন্য সদস্যদের মধ্যে মা ফুলেরা খাতুন, দুই বোন সাকিলা খাতুন ও সালমা খাতুনকে জেএমবি’র সাথে সম্পৃক্ততার দায়ে কারাগারে রয়েছে। তার বাবা আবু সাঈদও প্রায় এক বছর ধরে নিখোঁজ। তবে এলাকাবাসীর মতে, যেহেতু তার পরিবারের সকলেই জেএমবির সাথে সম্পৃক্ততা রয়েছে সেহেতু তিনিও জঙ্গী হতে পারে। শহিদুল ইসলাম নাম দিয়ে সিরাজগঞ্জের পুলিশের মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামিও ছিলেন আকাশ।

সিরাজগঞ্জের উল্লপাড়ায় ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে সন্ত্রাস দমন ও জঙ্গী কর্মকাণ্ডের মামলার অন্যতম আসামিও একই নামে রয়েছে। ওই মামলায় আদালতে তার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরেই ফরিদুল ইসলাম আকাশকে খুঁজছিল পুলিশ। পুলিশের কয়েক দফা অপারেশনে বারবার অল্পের জন্য রক্ষা পান তিনি। এরপর থেকে আকাশ আর এ অঞ্চলে ফিরে আসেননি।

এলাকাবাসী জানান, খবরের কাগজ ও টিভিতে সংবাদ দেখে সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের পশ্চিম বড়ইতলী গ্রামের সবাই জানতে পারেন ফরিদুল ইসলাম আকাশ নামে এক জঙ্গি নিহত হয়েছে। তবে তাদের পরিচিত ফরিদুল ইসলাম আর গাজীপুরে নিহত জঙ্গি ফরিদুল ইসলাম আকাশ একজনই কিনা সেটা নিয়ে এলাকাবাসীর মনে রয়েছে সংশয় রয়েছে। আবার অনেকে মনে করছেন মা ও ২ বোন যেহেতু আত্মঘাতী স্কোয়াডের সদস্য- সে হিসেবে এই আকাশই শহিদুল হবে। সিরাজগঞ্জ পলিটেকনিক থেকে কম্পিউটার বিভাগ থেকে পাশ করে ফরিদুল ইসলাম। এরপর চাকরির কথা বলে ঢাকায় চলে যায়। মাঝে মাঝে গ্রামের বাড়িতে দেখা গেলেও গত দেড় বছর থেকে তাকে আর এলাকায় দেখা যায়নি। তার পরিবারের সাথে অন্য কারো বিরোধ না থাকলেও তাদের সাথে কেউ মিশতো না।

এর আগে ৫ সেপ্টেম্বর সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার বরইতলী গ্রামে অভিযান চালিয়ে আকাশের মা, দুই বোনসহ আরও একজনকে আটক করে পুলিশ। তারা জেএমবির আত্মঘাতী স্কোয়াডের সদস্য বলেও দাবি করে গোয়েন্দারা। তখন আকাশ পলাতক আসামি ছিলেন।

সিরাজগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওহেদুজ্জামান জানান, ধারণা করা হচ্ছে নিহত আকাশই সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার বরইতলী গ্রামের ওয়ান্টেন্ড জেএমবি নেতা ফরিদুল ইসলাম আকাশ। তবে অফিসিয়ালি এ ব্যাপারে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ জানান, সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে ফরিদুল ইসলাম নামের এক শীর্ষ জেএমবি নেতা দীর্ঘদিন ধরেই পলাতক রয়েছে। তার মা ও দু'বোনকে আটক করা হয়েছে। এরা জেএমবির আত্মঘাতি স্কোয়াডের সদস্য বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। মূলত ফরিদুলের প্ররোচনায় তার দু’বোন ও মাসহ প্রতিবেশীরা জেএমবি কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন। তার পুরো পরিবার এখন জেএমবির সঙ্গে যুক্ত।


বিডি-প্রতিদিন/০৯ অক্টোবর, ২০১৬/মাহবুব

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow