Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:০৪
তিস্তার পানি বিপদসীমার ৫ সে:মি: উপরে
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
তিস্তার পানি বিপদসীমার ৫ সে:মি: উপরে

লালমনিরহাটে টানা চারদিনের ভারি বর্ষণ আর উজানের ঢলে তিস্তা পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে।
বৃহস্পতিবার বিকেলে তিস্তার ব্যারেজ পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৫ সেঃমিঃ  উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

আশ্বিনের শেষ সময়ের এই বন্যায় তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি সুইসগেট খুলে দেওয়া হয়েছে। তিস্তার উজান ও ভাটি অঞ্চল এখন থৈ-থৈ পানিতে ভাসছে। ডুবে গেছে উজান ও ভাটির ৪২টি চর। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ওই চরের অর্ধ- লক্ষাধিক মানুষ।
বন্যায় চুলো ও টিউবওয়েল ডুবে যাওয়ার কারণে খাবার ও বিশুদ্ধ পানির অভাবে রয়েছে বন্যা কবলিত মানুষগুলো। ভারি বর্ষণের সাথে উজানের ঢলে তিস্তা ও ধরলার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় লালমনিরহাটের কুলাঘাট, রাজপুর ও খুনিয়াগাছ ইউপির ১৬টি চর গ্রাম, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের গোবর্ধন, আরজী ছালাপাক, চন্ডিমারী ও কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী এবং তুষভান্ডার ইউনিয়নের ২১টি চর গ্রামের মানুষ বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। চরে প্রায় সব রাস্তাঘাট ভেঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাহানুর রহমান (যিনি বর্তমানে আদিতমারী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন) জানান, এ উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের ২ হাজার ৩শ’ পরিবার ও কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ও তুষভান্ডার ইউনিয়নের ১ হাজার ৯শ’ পরিবার পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টা থেকে তিস্তার পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পানি বিপদসীমার ৫ সে:মি: উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বিডি-প্রতিদিন/১৩ অক্টোবর ২০১৬/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow