Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:৪১
অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ
পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুতের হিসাব রক্ষক জেল-হাজতে
পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুতের  হিসাব রক্ষক জেল-হাজতে

পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত সংস্থার বহিস্কৃত হিসাব রক্ষক জায়েদা খানমকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। আজ রবিবার দুপুরে পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রেট ১ম আদালতের বিচারক এ এস এম তারিক সামসের আদালতে জায়েদা আত্মসমর্পন করলে আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এ বছরের ৪ এপ্রিল পটুয়াখালী সদর থানায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় সমিতির পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিলো। মামলা দায়েরের পর থেকেই অভিযুক্ত জায়েদা খানম পলাতক ছিলেন। পরবর্তীতে এ ঘটনার ৫ এপ্রিল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির চেয়ারম্যানের নিদের্শক্রমে পটুয়াখালী সমিতির জেনারেল ম্যানেজার ও মামলার বাদী প্রকৌশলী হাফিজ আহমেদ, সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (অর্থ) রনজিৎ কুমার দেবনাথ ও হিসাব রক্ষক তরিকুল্লাহ আকন্দকেও বহিস্কার করা হয়।

পটুয়াখালী দুদক কার্যালয় অভিযুক্ত জায়েদা খানমকে ১৭ অক্টোবর স্বশরীরে কার্যালয়ে হাজির হওয়ার জন্য একটি লিখিত চিঠি তার শহরের বাসায় পাঠায়। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর জায়েদা খানম আজ ১৬ অক্টোবর আদালতে আত্মসমর্পন করেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অনুকুলে পটুয়াখালী পুরান বাজার অগ্রণী ব্যাংক শাখায় এসটিডি-১৫  হিসাব নম্বরে অফিস রের্কড অনুযায়ী ১০ কোটি ৪৯ লাখ টাকা থাকার কথা থাকলেও বাস্তবে রয়েছে মাত্র  ৪ কোটি  ১৩ লাখ টাকা। পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে কর্মরত হিসাব রক্ষক জায়েদা খানম দীর্ঘদিন থেকে সমিতির বিভিন্ন উৎস থেকে অর্জিত অর্থ সমিতির ব্যাংক হিসাবে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন। এছাড়া ব্যাংকের ভূয়া জমা রশিদ ও ব্যাংক হিসাবের মাসিক স্টেটমেন্ট জালিয়াতি করে এসব আত্মসাৎ করা অর্থ মোট হিসাবে সমন্বয় করেন। ২০০৫ সাল থেকে তিনি এই জালিয়াতি করে আসছিলেন। এ বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে জায়েদাকে অন্যত্র বদলী করলে অর্থ জালিয়াতির বিষয়টি সমিতির হিসাব বিভাগের কাছে স্পস্ট হয়ে ওঠে।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow