Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:৫৩
লালমনিরহাটে কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটে কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন

টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে লালমনিরহাটে জুয়েলারি দোকান কর্মচারি এক কিশোরকে হাত পা বেঁধে নির্যাতন চালিয়েছে দোকানের মালিক। গুরুতর আহত কিশোরকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নির্যাতিতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জেলা সদরের সাপটানা এলাকার মনতাজ আলীর ছেলে কিশোর নয়ন মিয়া শহরের স্বর্ণকার পট্টির মামনি জুয়েলার্সের কর্মচারি হিসেবে দু'বছর থেকে কাজ করে আসছে।

এদিকে দোকানের দুই হাজার টাকা চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গত রবিবার রাতে দোকানের পিছনে ডেকে নিয়ে হাত পা বেঁধে বেধড়ক পেটায়। এতে সে খুবই অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দোকানেই আটকিয়ে রাখে। পরে দোকান মালিক কিশোরের বাবাকে জানায় দোকানে অনেক কাজ থাকায় তার ছেলে বাসায় যেতে পারবে না। এদিকে ঘটনার ৭দিন পেরিয়ে গেলেও সন্তান বাড়িতে না ফেরায় রবিবার সন্ধ্যায় নয়নের পিতা ওই দোকানে তার ছেলের খোঁজ করতে এলে দেখতে পায় তার ছেলে অসুস্থ অবস্থায় মেঝেতে শুয়ে রয়েছে।

পরে তার ছেলের মুখে সব শুনে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য দ্রুত লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে কিশোরটির বাবা মন্তাজ আলী বাদি হয়ে রবিবার রাতে লালমনিরহাট সদর থানায় ওই জুয়েলার্সের মালিক রাশেদুল ইসলাম রাশেদসহ দুই জনের নামে মামলা দায়ের করে। পুলিশ রাতেই ওই দোকানের মালিককে আটক করেছে।

বিডি-প্রতিদিন/ ১৭ অক্টোবর, ২০১৬/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow