Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৫৩
প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ভাইকে হত্যা, ৪ জনের যাবজ্জীবন
আব্দুর রহমান টুলু, বগুড়া
প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ভাইকে হত্যা, ৪ জনের যাবজ্জীবন

বগুড়ায় আপন ভাইকে হত্যার অভিযোগে ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছে আদালত। আজ  বুধবার বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-১ এর বিচারক মোঃ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বগুড়ার নন্দিগ্রাম উপজেলার কুসমা গ্রামের মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে আয়াত আলী বগুড়া শহরতলীর ভাটকান্দিতে বসবাস করতো। আয়াত আলীর (৫০) সাথে প্রতিবেশিদের জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। সেই বিরোধের জের ধরে প্রতিবেশিকে ফাঁসাতে তার আপন ভাইকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী নন্দিগ্রামের কুসমা গ্রামের মৃত আব্দুল্লার ছেলে আব্দুল খালেক (২৫), একই গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র আব্দুল মতিন (২৪) ও ছলিমুদ্দিনের পুত্র বুলু মিয়ার (৩৫) সাথে তার ভাই মোঃ আব্দুর রহমানকে (৩৭) হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০০৫ সালে ২৬ এপ্রিল ওই ৩ জন আব্দুর রহমাকে কবিরাজির একটি বই দেওয়ার জন্য বগুড়া শহরে ডেকে নেয়। পরে আব্দুর রহমানের ছোট ভাই আয়াত আলী সহ ওই ৩জন ভাটকান্দিতে ডেকে নিয়ে রাত ৯টায় তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরদিন পুলিশ আব্দুর রহমানের লাশ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় তার বড় ভাই আলহাজ্ব মোকলেছুর রহমান বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার দায়িত্বভার দেওয়া হয় ডিবি পুলিশের সাব ইন্সেক্টর মনিরুল ইসলামকে। তদন্ত শেষে মনিরুল ইসলাম ২০০৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারী আব্দুর রহমানের ছোট ভাই আয়াত আলীসহ আব্দুল খালেক, আব্দুল মতিন ও বুলু মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসিট দাখিল করে।

সরকার পক্ষের আইনজীবী নাছিমুল করিম জানান, "সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত ৪জনের যাবজীবন  কারাদন্ড প্রদান করেন। এবং আরো ২০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করেন। অনাদায়ে আরো ৬মাস সশ্রম কারাদন্ড ঘোষণা করেন। রায় ঘোষনার সময় আয়াত আলী উপস্থিত থাকলেও বাকি আসামীরা পলাতক ছিল। "


 বিডি-প্রতিদিন/১৯ অক্টোবর, ২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow