Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:৪৭
আপডেট :
পুলিশের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে আসামি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল
পুলিশের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে আসামি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ

বরিশালের গৌরনদী মডেল থানার এএসআই মো. মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে হত্যাসহ তিন   মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি সাবেক ইউপি সদস্য নান্নু মৃধাকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। নান্নুর সাথে থাকা ২০ হাজার টাকা রেখে দিয়ে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন ওই এলাকার এক জনপ্রতিনিধি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,  খাঞ্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ইউপি সদস্য আশ্রাব আলী সরদারের বাড়িতে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে খাদেম হত্যা ও মাদক সহ ৩ মামলারওয়ারেন্টভুক্ত আসামী বার্থী ইউপির সাবেক সদস্য নান্নু মৃধা, ইয়াবা বিক্রেতা ইব্রাহিম কাজী, মোঃ বাচ্চু সহ ৪/৫ জন জুয়া খেলছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গৌরনদী মডেল থানার এএস আইমো. মোশারফ হোসেন ও কনস্টেবল মোহাম্মদ আলী সাদা পোশাকে ওইদিন   দুপুর ১টার দিকে ওই বাড়িতে হানা দেয়। পুলিশ দেখে অন্যান্যরা পালিয়ে গেলেও হত্যা ও   মাদক মামলার আসামি নান্নুমৃধা এবং ইয়াবা বিক্রেতা ইব্রাহিম কাজীকে আটক করে পুলিশ।

খাঞ্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেকইউপি সদস্য মো. আশ্রাব আলী সরদার তার বাড়িতে তাস খেলারকথা স্বীকার করে বলেন, "পুলিশ নান্নু মৃধাকে আটক করে তার শরীর তল্লাশী করে বিশ হাজার টাকার একটি বান্ডেল পায়। পরে ওই টাকা রেখে নান্নু মৃধাকে ছেড়ে দেয় এএসআই মোশারফ। এ সময় ৭০ পিস ইয়াবাসহ ইব্রাহিমকে থানায় নিয়ে যায় তারা। " 

অভিযোগ অস্বীকার করে এএসআই মোশারফ হোসেন বলেন, "তিনি গৌরনদী মডেল থানায় নতুন এসেছেন। তাই তিনি নান্নু মৃধাকে চেনেন না। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে নান্নু মৃধা সহ ২ জন পালিয়ে যায়। এ সময় ৭০পিস ইয়াবা সহ মাদক বিক্রেতা ইব্রাহিম কাজীকে আটক করা হয়। "

গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন জানান, "টাকা রেখে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি   ছেড়ে দেয়ার  অভিযোগ সঠিক নয়। আশ্রাব মেম্বারের বাড়িতে নান্নু মৃধা ছিল তা নতুন এএসআই মোশারফহোসেন জানতো না। তাই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হত্য ও মাদকসহ   ৩ মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নান্নু পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। " 

 

বিডি-প্রতিদিন/২১ অক্টোবর, ২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow