Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৩৭ অনলাইন ভার্সন
নেত্রকোনায় রাশিমনি হাজং মাতা স্মরণে মেলা
নেত্রকোনা প্রতিনিধি:
নেত্রকোনায় রাশিমনি হাজং মাতা স্মরণে মেলা
রাশিমনি হাজং মাতা স্মরণে নির্মিত স্মৃতিসৌধ

টংক ও কৃষক আন্দোলনসহ তেভাগা আন্দোলনের প্রথিকৃৎ হাজংমাতা রাশিমনি স্মরণে গারো পাহাড়ের পাদদেশে ৭ দিনব্যাপী রাশিমনি হাজং মেলা শুরু হয়েছে। আদিবাসী ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে নেত্রকোনার দূর্গাপুরে বহেড়াতলী গ্রামে স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে ৩১ জানুয়ারি রাশিমনির মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে এ মেলার আয়োজন করা হয়।
 
গত ২০০৪ সালে নেত্রকোনার দূর্গাপুর উপজেলার কুল্লাগড়া ইউনিয়নের বহেড়াতলী গ্রামে রাশিমনি হাজং স্মৃতিসৌধ নির্মান করা হয়। এরপর গত কয়েক বছর ধরে এই বহেড়াতলী বৃষ্টিগাছের নীচে মেলার আয়োজন করে আসছেন আদিবাসী নেতারা। এই মেলার ফলে নতুন প্রজন্ম টংক আন্দোলন সর্ম্পকে জানতে পারে। স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে আলোচনা সভায় বাংলাদেশ আদিবাসী ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সভাপতি খগেন্দ্র হাজংয়ের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন লেখক গবেষক আলী আহাম্মদ খান আইয়োব, আয়োজক পংকজ মারাক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৪৬ সালে ইর্স্টান ফ্রন্টিয়ার বাহিনী হাজং নারী কুমোদিনীকে তুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় টংক আন্দোলনের এ অঞ্চলের প্রথম নারী নেত্রী রাশিমনি হাজং দুই পুলিশকে হত্যা করে কুমোদিনী হাজংকে উদ্ধার করেন। তিনিও ইর্স্টান ফ্রন্টিয়ার বাহিনীর গুলিতে শহীদ হন। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে রাশিমনি হাজং স্মরনে স্মৃতিসৌধ নির্মান করা হয়।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

up-arrow