Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৪:২৪ অনলাইন ভার্সন
অভি হত্যার বিচার দাবীতে পাবনার আতাইকুলায় মানববন্ধন
পাবনা প্রতিনিধি
অভি হত্যার বিচার দাবীতে পাবনার আতাইকুলায় মানববন্ধন

পাবনার আতাইকুলায় স্কুল ছাত্র শাহরিয়ার হাসান অভি হত্যার বিচার দাবীতে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে শোলাবাড়িয়াতে এই মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে আতাইকুলার শোলাবাড়িয়া গ্রামের সহস্রাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেয়। ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, অভিকে প্রতিবেশীরা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। পুলিশ তাদের গ্রেফতারে টালবাহানা করছেন। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই হত্যাকাণ্ডের মূল আসাসিকে গ্রেফতার না করা হলে হরতালসহ বিভিন্ন কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।  

আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক জানান, স্কুল ছাত্র অভি হত্যার পরদিন জড়িত সন্দেহে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন শোলাবাড়িয়া গ্রামের জয়নাল শেখ (৫০) ও তার ভাই জালাল শেখের স্ত্রী বানেছা খাতুন (৩০), তাদের প্রতিবেশী শামসুল ইসলাম (৪০) ও ঠান্টু হোসেন (৩০)। ঘটনার অন্যতম হোতা জালাল উদ্দিন এখনো পলাতক রয়েছে।

মানববন্ধনে অভির চাচা বাকী বিল্লাহ বলেন, ঘটনার এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও পুলিশ ঘটনার মূল আসামীকে ধরতে পারে নাই।

কোনো মিথ্যা নাটক সাজিয়ে ঘটনা ধামাচাপা দেয়া যাবে না।

মানববন্ধনে উপস্থিত লোকজনের দাবী, পুলিশ উৎকোচের বিনিময়ে মামলাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার করছেন। চোর সন্দেহে অভিকে হত্যা করা হয়েছে বলে মিথ্যা নাটক সাজানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। মূল আসামীদের পুলিশ যতই বাঁচানোর চেষ্টা করুন না কেন, তা হতে দেয়া হবে না।
 
আতাইকুলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র অভি গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাতের খাবার খেয়ে নিজ ঘরে ঘুমাতে যায়। সকালে গ্রামের পাশের একটি মাঠে ক্ষতবিক্ষত লাশ পাওয়া যায় তার। ঘটনার পর গ্রামের জালাল শেখ ও জয়নাল শেখের বাড়ি জনশূন্য এবং উঠানে রক্ত দেখতে পেয়ে লোকজনের সন্দেহ হয়।

অভি জেলার সাঁথিয়া উপজেলার শোলাবাড়িয়া গ্রামের ইমরান হোসেন বাবুর ছেলে। সে আতাইকুলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।  

বিডি প্রতিদিন/৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow